এফএনএস: সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী এবং সংসদ সদস্য শাজাহান খান বলেছেন, কুঁজো মানুষের সোজা হয়ে দাঁড়াতে ইচ্ছে করলেও, সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারে না। তেমনি বিএনপি আন্দোলন সংগ্রাম করতে চাইলেও পারেনা। বিএনপি বর্তমানে একটি কুঁজো দলে পরিণত হয়েছে। গতকাল বুধবার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা যুব কমান্ড আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকা- কোনো এক ব্যক্তিকে হত্যা নয়, এই হত্যাকা- মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে হত্যা করা। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিদেশি দূতাবাসে চাকরি দিয়েছেন। স্বাধীনতাবিরোধী শাহ আজিজুর রহমানকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছেন। খালেদা জিয়া মুক্তিযুদ্ধবিরোধীদের মন্ত্রী বানিয়েছেন।
বিএনপিকে একটি সন্ত্রাসী দল মনত্মব্য করে তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থেকে এবং ক্ষমতার বাইরে থেকেও মানুষকে হত্যা করেছে।
বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে সারের দাবিতে কৃষকরা যখন আন্দোলন করেছে তখন তাদের গুলি করে হত্যা করা হয়। কানসার্টে যখন বিদ্যুতের দাবিতে আন্দোলন করা হচ্ছে তখনও আন্দোলন দমন করার জন্য মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। ক্ষমতার বাইরে বিরোধী দলে থাকা অবস্থায় ২০১৩, ১৪ ১৫ সালে পেট্রোল বোমা, আগুন সন্ত্রাস করে বহু মানুষ হত্যা করেছে। বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল।
শাজাহান খান বলেন, তারেক রহমান বিদেশে বসে বার্তা পাঠিয়ে আন্দোলন-সংগ্রাম গড়ে তুলতে চান। ইতিহাস সাক্ষী, বড় নেতারা কখনো পালিয়ে যাননি। দেশে থেকেই আন্দোলন-সংগ্রাম করার জন্য কারাবরণ করেছেন। বিদেশ থেকে বার্তা পাঠিয়ে আন্দোলন-সংগ্রাম হয় না।
তিনি বলেন, ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধের সেস্নাগান জয় বাংলা পরিবর্তন করে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ করা হয়। বাংলাদেশ বেতারকে পরিবর্তন করে বাংলাদেশ রেডিও করা হয়।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে তিনি বলেন, আজকে জাতীয় শোক দিবসে আমরা শোককে শক্তিতে পরিণত করে মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তির বিরম্নদ্ধে লড়াই সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে হবে।
তাহলেই বঙ্গবন্ধুর চেতনা ও আদর্শ বাসত্মবায়ন হবে। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বাধীন বাংলা মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় ফাউন্ডেশনের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধার সনত্মান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের নেতা আসিবুর রহমান খান। শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা যুব কমান্ডের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান সুমন।