ভবন নর্মিাণরে জন্য ঋণ গ্রহণরে ক্ষত্রে েমথ্যিা তথ্য সরবরাহরে জন্য শাস্তরি ময়োদ বৃদ্ধ িকর েবাংলাদশে হাউজ বল্ডিংি ফন্যিান্স কর্পোরশেন আইন-২০১৯ এর খসড়ার নীতগিত চূড়ান্ত অনুমোদন দয়িছে েমন্ত্রসিভা। নতুন আইন েদুই বছররে স্থল ে৫ বছররে কারাদন্ড এবং দুই হাজার টাকার স্থল ে৫ লাখ টাকা পর্যন্ত অর্থদন্ডরে বধিান রাখা হয়ছেে।
প্রধানমন্ত্রী শখে হাসনিার সভাপতত্বি েগতকাল তাঁর কার্যালয় ে(পএিমও) অনুষ্ঠতি মন্ত্রসিভার নয়িমতি বঠৈক েএই সদ্ধিান্ত গৃহীত হয়।
পর েসচবিালয় েসাংবাদকিদরে ব্রফিংিকাল েমন্ত্রপিরষিদ সচবি মো.শফউিল আলম বলনে, এট ি১৯৭৩ সাল েএকট প্িরসেডিন্সেয়িাল অর্ডার দয়ি েসৃষ্ট িকরা হয়। যটে িহচ্ছ ্েতুদ িবাংলাদশে হাউজ বল্ডিংি ফন্যিান্স কর্পোরশেন অর্ডার ১৯৭৩্থ এবং এর উপর ভত্তি িকরইে এতদনি চলছলি।
তনি িবলনে, ্তুআইনরে পরবির্তন খুবই কম। যটেুকু পরবির্তন হয়ছে েতা হচ্ছ-েদন্ডরে মধ্য েএকটু পার্থক্য আনা হয়ছে।ে আগ েয েশান্ত িছলি সইে শাস্তটিাক েএকটু বাড়ানো হয়ছে।্েথ
মন্ত্রপিরষিদ সচবি বলনে, ্তুআগ ে৩৫ ধারায় বলা ছলি- কর্পোরশেনরে কাছ থকে েঋণ গ্রহণরে উদ্দশে েযদ িকউ ইেচ্ছাকৃতভাব েমথ্যিা ববিরণী প্রদান করনে বা জানয়িা শুনয়িা মথ্যিা ববিরণী ব্যবহার করনে বা কর্পােরশেনক েযকেোন প্রকার েজামানত গ্রহণ প্েরবৃত্ত করনে তাহল েতনি িসর্বাচ্েচ দুই বছর ময়োদওে কারাদন্ড বা দুই হাজার টাকা জরমিানা বা উভয় দন্ড েদন্ডতি হইবনে।্থ
শফউিল আলম বলনে, ্তুনতুন আইন েএই শাস্তকি েবাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়ছে।ে দুই বছররে স্থান ে৫ বছররে দন্ড প্রদানরে প্রস্তাব করা হয়ছে।ে আর অর্থদন্ড ত েদুই হাজার টাকা থকে েবাড়য়ি ে৫ লাখ টাকা পর্যন্ত অর্থদন্ডরে প্রস্তাব করা হয়ছে। অের্থাৎ ৫ বছররে কারাদন্ড অথবা ৫ লাখ টাবা জরমিানা বা উভয় দন্ডরে বধিান রাখা হয়ছে।্েথ
তনি িবলনে, কর্পােরশেনরে লখিতি সম্মত ব্িযতরিীক েযদ িকউে কর্পোরশেনরে নাম কোন প্রসপক্টোস েবা বজ্ঞিাপন ব্েযবহার করনে তার জন্য অতীত ে৬ মাসরে কারাদন্ড এবং এক হাজার টাকা জরমিানার বধিান ছলি। এখান েনতুন আইন েকারাদন্ড ৬ মাস বলবৎ রখে ে৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ডরে প্রস্তাব করা হয়ছেে।
মন্ত্র িপরষিদ সচবি বলনে, পরবির্ততি প্রক্ষেপট েনতুন আইনরে ক্ষত্রে েবশেকছিু পরবির্তন আনা হয়ছে।ে যমেন- হাউজ শব্দট িআগ ্েতুস্থ দয়ি েছলি এখন তা ্তুজ্থ দয়ি েকরা হয়ছে।ে আর কয়কেট িজনিসি নতুন সংযোজন করা হয়ছে।ে খলোপ িঋণ যটে িআগ েছলিনা সটে িসংজ্ঞার (ঘ) ত েদওেয়া হয়ছে।ে তারপর েকর্পােরশেনরে চয়োরম্যান কথাট িআগ েসংজ্ঞাত েছলি না, পরচিালক শব্দট িছলি না, এখন নতুনভাব েএই শব্দগুলো সন্নবিশেতি করা হয়ছেে।
৩ ধারাত েসুপার সডিংি কসে বা আইনরে প্রাধান্য, অর্থাৎ এই আইনট অনি্য আইনগুলোর ওপর প্রাধান্য পাব,ে সইে ধারাট িযুক্ত করা হয়ছেে।
৫ ধারাত েএকট িনতুন বষিয় সংযোজন করা হয়ছে েকার্যালয়। অর্থাৎ এই কর্পােরশেনরে অফসি হব েঢাকাত।ে আর ১১ ধারায় পরচিালকরে ময়োদ, এই ময়োদ িবল েদওেয়া হয়ছে।ে কোন পরচিালক সরকাররে সন্তুষ্টক্রিম েএক ময়োদ েঅনুর্ধ্ব ৩ বছর সময়রে জন্য বহাল থাকবনে।
সচবি বলনে, আগ ে১১০ কোট িটাকা ছলি অনুমোদতি মুলধন যটেকি েএক হাজার কোটরি প্রস্তাব করা হয়ছে েআর পরশিোধতি মূলধন ১১০ কোট িথকে েনর্ধিারণ করা হয়ছে ৫শে্থ কোট িটাকা। আর অতীতরে মতো ৭ জনরে পরচালনা পর্ষদ বহাল রাখা হয়ছে।ে অতীতরে নয়িমইে সরকার কতৃর্ক এর চয়োরম্যান নয়িোগপ্রাপ্ত হবনে।
তনি িবলনে, আইনরে ৯ ধারা অনুযায়ী কর্পােরশেনরে একজন চয়োরম্যান থাকবনে, যনি িসরকার কতৃর্ক নযিুক্ত হবনে এবং শতাবলীও সরকার ঠকি করবনে। আর নতুন চয়োরম্যান দায়ত্বি না নওেয়া পর্যন্ত পূর্বরে চয়োরম্যান দায়ত্বি পালন অব্যাহত রাখবনে।