এফএনএস: নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরবাগ্‌গা গ্রামে স্ত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় স্বামী নাছির উদ্দিনকে অ্যাসিড নিক্ষেপের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার দিবাগত মধ্যরাত ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এসিড সন্ত্রাসের শিকার নাছির উদ্দিন ওই গ্রামের নেজাম উদ্দিনের ছেলে। নাছির বর্তমানে ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার বুক, হাত ও উর্বসহ শরীরের ৯ শতাংশ ঝলসে গেছে বলে জানিয়েছেন দায়িত্বরত চিকিৎসক।
চিকিৎসাধীন নাছিরের মা জানান, গত রোববার দুপুরে জেলা শহর মাইজদীতে নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে নির্যাতনের বির্বদ্ধে অন্যান্যের সঙ্গে নাছিরও মানববন্ধনে অংশ নেন। সেখান থেকে বিকেলে বাড়ি ফিরলে ধর্ষণ মামলার আসামি ও তার লোকজন নাছিরসহ পরিবারের সদস্যদের নানাভাবে হুমকি দেয়। একপর্যায়ে রাতে নাছির প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে বের হলে তাকে লক্ষ্য করে ৬-৭ জনের একদল সন্ত্রাসী অ্যাসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। এ সময় নাছির ৩-৪ জনকে চিনতে পেরেছেন বলে জানান। পরে নাছিরকে উদ্ধার করে রাতেই নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজীম জানান, নাছিরের শরীরের প্রায় ৯ শতাংশ ঝলসে গেছে। তবে তিনি শংকামুক্ত রয়েছেন। জানা যায়, নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গত ২৩ মে উত্তর বাগ্‌গা গ্রামে গোপনে গোসলের ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে নাছিরের স্ত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ নাছিরের। এ ঘটনায় অভিযুক্ত জয়নাল নামে একজনকে আসামি করে আদালতে মামলা দিলে বাদীর পরিবারের বির্বদ্ধে উল্টো টাকা আত্মসাতের মিথ্যা মামলা ও সাক্ষীদের এলাকা থেকে বিতাড়িত করার হুমকি দিয়ে আসছে বলে অভিযোগ করছে নাছিরের পরিবার।