এফএনএস: যুক্তরাষ্ট্রে অর্থপাচারের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি চৌধুরী। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকার সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে দুদকের উপ-পরিচালক জালাল উদ্দিন আহাম্মদ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন বলে কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান।
একই অভিযোগে মাহী বি চৌধুরীর স্ত্রী আশফাহ হককে তলব করা হলেও তিনি দুদকে আসেননি। গত ৪ অগাস্ট মাহী বি চৌধুরীর বারিধারার ঠিকানায় দুটি নোটিস পাঠিয়ে এই দম্পতিকে ৭ অগাস্ট কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছিল। কিন্তু অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য দিতে প্রয়োজনীয় নথিপত্র সংগ্রহের জন্য আরও সময় চেয়ে তারা ৭ অগাস্ট কমিশনে আবেদন করেন। এই প্রেক্ষিতে ২৫ অগাস্ট তাদের কমিশনে হাজির হওয়ার সময় দিয়ে আবারও চিঠি পাঠানো হয়। সাবেক রাষ্ট্রপতি এ কিউ এম বদরম্নদ্দোজা চৌধুরীর ছেলে মাহী বিকল্পধারার সংসদ সদস্য। দুদক কর্মকর্তারা বলছেন, জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও তা যুক্তরাষ্ট্রে পাচারের অভিযোগ রয়েছে মাহী ও তার স্ত্রী আশফাহ হকের বিরম্নদ্ধে। গত জুন থেকে এই অভিযোগের বিষয়ে অনুসন্ধান শুরম্ন করেন দুদকের উপ-পরিচালক জালাল উদ্দিন আহাম্মদ। তবে অভিযোগের বিষয়ে মাহীর বক্তব্য জানা যায়নি।