নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি: নন্দীগ্রামে চাঁদাবাজির অভিযোগে ২ জন গ্রেপ্তার হয়েছে।
থানা সূত্রে জানা গেছে, নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের ভদ্রদিঘি গ্রামের রিনা খাতুন বগুড়ার শেরপুর শহরের শেখ সাদী’র কাপড়ের দোকান থেকে ৮ হাজার ৩ শ টাকার কাপড় বাঁকি নেন। বুধবার শেখ সাদী পাওনা টাকা নেয়ার জন্য ভদ্রদিঘি গ্রামে আসলে রিনা খাতুনসহ ৪/৫ জন যুবক তাকে আটকে রেখে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এক পর্যায়ে শেখ সাদী নিরুপায় হয়ে ২০ হাজার টাকা দেন। বাকি টাকা নন্দীগ্রাম মনসুর হোসেন ডিগ্রি কলেজ গেটে দেয়ার কথা বলেন। সেই টাকা নিতে এসে নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের বীরপলি গ্রামের আশিক আহম্মেদ (২২) ও বাংলাবাজারের জাকারিয়া ইসলাম (২২) গ্রেপ্তার হন।
শুক্রবার থানার অফিসার ইনচার্জ শওকত কবির বলেন, এ বিষয়ে থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়। তিনি আরো জানান, অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।