নওগাঁ ব্যুরো: ডেঙ্গু প্রতিরোধে নওগাঁ পুরো জেলায় একযোগে পরিষ্কর পরিচ্ছন্নতা ও মশকনিধন অভিযান পারিচালিত হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের আহবানে জেলার ১১টি উপজেলা এবং সকল ইউনিয়ন পর্যায়ে একযোগে এই অভিযান পরিচালিত হয়।
সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে জেলা সদরে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক হারুন-অর-রশীদ। এ সময় পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাহবুবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) উত্তম কুমার রায়, স’ানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক গোলাম মো. শাহনেওয়াজ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিৰা ও আইসিটি) কামরুজ্জামান, জেলা অ্যাডভোকেট বার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. ইকবাল জামিল চৌধুরী লাকী উপসি’ত ছিলেন।
জেলা প্রশাসন ছাড়াও জেলার প্রতিটি অফিস, প্রতিটি উপজেলা পরিষদ, প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে অফিস প্রধান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের নেতৃত্বে এই পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা এবং মশক নিধন অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় এলাকার বিভিন্ন রাস্তঘাট, ড্রেন নর্দমা এবং জঙ্গল পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন এবং ফগার মেশিন দিয়ে মশকনিধনের ঔষধ স্প্রে করা হয়।
আত্রাই প্রতিনিধি জানান, আত্রাইয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও মশক নিধন অভিযান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছানাউল ইসলাম। এছাড়া মতবিনিময় সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ এবাদুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ভাইস চেয়ারম্যান শেখ হাফিজুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ বেগম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
নিয়ামতপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, নিয়ামতপুর উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন এ অভিযানে লিফলেট বিতরণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার। দিনব্যাপী নিয়ামতপুর বাজার ও এর আশপাশের ড্রেনসমূহ পরিস্কার করা হয়।
পত্নীতলা প্রতিনিধি জানান, বুধবার সকাল ১১টায় নজিপুর সরকারি কলেজে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যৰ ড. লোকনুজ্জামান আহমেদ’র নেতৃত্বে মশক নিধন ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি পরিচালিত হয়।
ধামইরহাট প্রতিনিধি জানান, সকাল ১০ টায় উপজেলার চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিতে অংশ গ্রহণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আজাহার আলী, ইউএনও গনপতি রায়, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যৰ শহীদুল ইসলাম প্রমুখ। র‌্যালি শেষে উপজেলার বিভিন্ন স’ানে ময়লা আবর্জনা পরিস্কার কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।