এফএনএস ডেস্ক: তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্েযব এরদোগান বলেছেন, তার দেশের সেনারা সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে অভিযান চালাবে। তিনি বলেন, ওই এলাকায় মার্কিন সমর্থিত কুর্দি সন্ত্রাসীরা তৎপর রয়েছে। তিনি বলেন, বিষয়টি এরইমধ্যে মার্কিন সরকারকে জানানো হয়েছে। এরদোগান বলেছেন, “আমরা আফরিন, জারাবলুস ও আল-বাবে প্রবেশ করেছি। এখন আমরা ফোরাত নদীর পূর্ব তীরে প্রবেশ করব। বিষয়টি আমরা রাশিয়া ও আমেরিকাকে জানিয়েছি। যতক্ষণ পর্যন্ত ওই এলাকা থেকে গোলাগুলি অব্যাহত থাকবে ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা চুপ থাকব না।” এরদোগান বলেন, আংকারা দীর্ঘ সময় আমেরিকার ব্যাপারে ধৈর্য ধারণ করেছে কিন’ এখন সে ধৈর্য শেষ হয়ে আসছে। ফোরাত নদীর যে এলাকায় মার্কিন সমর্থিত ওয়াইপিজি কুর্দি গেরিলারা তৎপর রয়েছে তাদেরকে তুরস্ক শত্র্ব বলে মনে করে। ওয়াইপিজি-কে তুরস্কে নিষিদ্ধ পিকেকে গেরিলা গোষ্ঠীর শাখা মনে করে আংকারা। ফোরাত নদীর পূর্ব এলাকায় কুর্দি গেরিলাদের পাশাপাশি মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে। ওই এলাকায় তুরস্ক নিরাপদ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করতে চায়। তবে রাশিয়া বলছে, এ ধরনের নিরাপদ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করতে হলে সিরিয়া সরকারের অনুমতি নিতে হবে।