স্টাফ রিপোর্টার: সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেড়্গা করে রাজশাহীর পবা উপজেলার ললিতাহার বাইপাস সড়কে অবৈধভাবে টোল (খাজনা) আদায়ের অভিযোগ হয়েছে। গতকাল রোববার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এ অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।
অভিযোগ থেকে জানা গেছে, কয়েক বছর আগে থেকে রাজশাহী-ঢাকা বাইপাস সড়কের (ললিতাহার) খড়খড়িতে দোকানঘর তুলে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে এলাকার অনেকেই। এছাড়াও স্থানীয় চাষিরা প্রতিদিনই খড়খড়ি মোড়ে কাঁচা সবজি বিক্রি করে সংসার চালায়। এতে এলাকাবাসী বেশ লাভবান হয়। কিন্তু কয়েকদিন আগে থেকে আসাম কলোনীর জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে আরিফ হোসেন খড়খড়ি হাটের ইজারাদার মহাসড়কে অবৈধভাবে খাজনা আদায় করছে। খড়খড়ি হাট খড়খড়ি মৌজায় হলেও খড়খড়ি বাইপাস মোড় হচ্ছে ললিতাহার মৌজায়। ইজারাদার খড়খড়ি হাটের টোল বা খাজনা আদায় না করে খড়খড়ি মোড়ে মহাসড়কের ওপর ললিতাহার মৌজায় জোরপূর্বক খাজনা আদায় করছে।
এছাড়াও মোড়ে দোকান ভাড়া নেয়া ড়্গুদ্র ব্যবসায়ীদের কাছে থেকে অবৈধভাবে খাজনা নেয়া হচ্ছে। কেউ খাজনা দিতে না চাইলে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। সুষ্ঠু তদনত্ম সাপেড়্গে খড়খড়ি হাট ইজারার নামে ললিতাহার বাইপাস সড়কে অবৈধ টোল আদায় বন্ধে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আবেদন করেছে এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা।