স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ১৫ তম ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন ও অভিভাবক সমাবেশ গতকাল বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়।
২০১৯-২০২০ শিৰাবর্ষে ডিপেৱামা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে ১ম পর্বে ভর্তিকৃত ছাত্রীদের এবং অভিভাবকদের উপসি’তিতে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন ১৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব সাহাদত আলী শাহু। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভিক্টিম সাপোর্ট সেন্টারের ইন্সপেক্টর পলি দাস। সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর অধ্যৰ মোঃ ওমর ফার্বক।
অনুষ্ঠানের শুর্বতে শোকের মাসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৪৪ তম শাহাদত বার্ষিকী উপলৰ্যে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অন্যান্য শহীদানের স্মরণে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্ব মোঃ সাহাদত আলী শাহু, বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক অগ্রগতি তুলে ধরেন। শিৰার্থীদের উদ্দ্যেশে বিভিন্ন ধরনের নৈতিক শিৰা মূলক দিক নির্দেশনা দেন। তিনি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ বিশেষ করে ফেসবুক ব্যবহারের ৰেত্রে সতর্ক থেকে ব্যবহারের পরামর্শ দেন।
সভাপতির বক্তব্যে অধ্যৰ ওমর ফার্বক কারিগরি শিৰায় সরকারের বিভিন্ন পদৰেপ ও কর্মসূচী তুলে ধরেন। তিনি কারিগরি শিৰায় মেয়েদের দৰ করে গড়ে তোলার জন্য সরকারের প্রদত্ত বিভিন্ন ধরনের বৃত্তির ব্যবস’া রয়েছে উলেৱখ করেন। এই বৃত্তির টাকা শিৰার্থী যেন অপব্যয় না করে সেদিকে অভিভাবকগণকে লৰ্য রাখার তাগিদ দেন। পাশপাশি সন্তানের সাথে সার্বৰনিক যোগাযোগ রাখার পরামর্শ দেন। তিনি সকল শিৰার্থীকে ১০০% ক্লাসে উপসি’ত থাকার জন্য অভিভাবকদের সহযোগীতা কামনা করেন।
স্বাগত বক্তব্যে ইনস্টিটিউটের সার্বিক ও একাডেমিক কার্যক্রম সম্পর্কে ধারনা প্রদান করেন একাডেমিক ইনচার্জ ও চীফ ইন্সট্রাক্টর (কম্পিউটার) সেলিম আহমেদ। শিৰকদের পৰ থেকে বক্তব্য প্রদান করেন শহীদে মোস্তফা মোহাম্মদ আরেফ রব্বানী, পাপিয়া সুলতানা, মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এবং জাহানারা বেগম লাইলী।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন অত্র ইনস্টিটিউটের লাইব্রেরীয়ান আবু নাসির মুহাম্মদ সিদ্দিক হোসেন। অনুষ্ঠানের শুর্বতে আমন্ত্রিত অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ করেন ইনস্টিটিউটের শিৰার্থীবৃন্দ এবং নবাগত ছাত্রীদের ফুল দিয়ে বরণ করে ইনস্টিটিউটের রোভার স্কাউট সদস্যবৃন্দ।