স্টাফ রিপোর্টার: আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে রাজশাহীর যে সমস্ত সরকারি অফিসে সঠিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে তাদের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হবে। আর ভুলভাবে পতাকা উত্তোলন করলেই করা হবে জরিমানা। এই জরিমানার পরিমাণ ১০ টাকা।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন উপলক্ষে আয়োজিত এক প্রস্তুতিমূলক সভায় এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক হামিদুল হক। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষেই এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক সভায় সভাপতিত্ব করেন।
তিনি বলেন, শোক দিবসে যারা সঠিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবে তাদের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরস্কৃত করা হবে। আর যারা ভুল করবে তাদের ১০ টাকা করে জরিমানা করা হবে। এ নিয়ে মাইকযোগে প্রচার করা হবে, যাতে সবাই সচেতন হতে পারে। এই বিষয়গুলো দেখার জন্য মনিটরিং টিম ও ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকবে।
জেলা প্রশাসক বলেন, সবাই যেন সঠিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করার চর্চা করেন তার জন্য ‘প্রতীকিভাবে’ এই জরিমানা করা হবে। আমরা যেন কেউই জাতীয় পতাকার অমর্যাদা না করি।
সভায় জাতীয় শোক দিবসের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরা হয়। দেশের অন্যান্য স্থানের মতো রাজশাহীতেও দিবসটি যেন যথাযথ মর্যাদায় পালিত হয় তার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে র‌্যালি, পুষ্পস্তবক অর্পণ ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। কর্মসূচি ঠিকমতো পালনের জন্য একটি উপদেষ্টা কমিটি, র‌্যালি উপ-কমিটি, মনিটরিং কমিটিও থাকবে বলে জেলা প্রসাশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়।
সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রসাশক (সার্বিক) রুহুল আমিন, রাজশাহী মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ডা. আব্দুল মান্নান, জেলার সাবেক কমান্ডার শাহাদুল হকসহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কমকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।