এফএনএস: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় এক অটোরিকশাচালককে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে। পরে চালকের অটোরিকশাটি ছিনতাইয়ের সময় জনতা খুনি সন্দেহে এক যুবককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার খলিশাকু-ি ইউনিয়নের মৌবাড়িয়া-শ্যামপুর মাঠ এলাকা থেকে অটোরিকশাচালক বিজয়ের লাশটি উদ্ধার করা হয়।
অটোরিকশাচালক বিজয় মেহেরপুর জেলার গাংনি উপজেলার বামুন্দি এলাকার আবদুল হাকিমের ছেলে। আর এ ঘটনায় আটক সন্দেহভাজন ছিনতাইকারী রকির (২৬) বাড়ি একই উপজেলার বাওট গ্রামে। দৌলতপুর থানার ওসি মো. আজম খান বলেন, রাতে তিন ছিনতাইকারী যাত্রী বেশে বিজয়ের অটোরিকশা ভাড়া করে। মৌবাড়িয়া-শ্যামপুর মাঠ এলাকায় চালকের পেটে ছুরিকাঘাত করা হয়।
এ সময় চালক চিৎকার করেন। তখন তাঁর গলায় ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে জনতা ধাওয়া দিয়ে রকি নামের এক ছিনতাইকারীকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। অপর দুই ছিনতাইকারীকেও আটকের চেষ্টা হচ্ছে বলে জানান ওসি। তিনি আরো জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।