সোনালী ডেস্ক: আজ ২৫ জুলাই, বৃহস্পতিবার রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার পুঠিয়া সদর ও জিউপাড়া ইউনিয়নের নির্বাচন এবং তানোরের কলমা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পুঠিয়া সদর ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ হবে ইভিএমে। এ তিনি ইউনিয়নে সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণের জন্য সকল প্রসত্মুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন ও স্থানীয় প্রশাসন। বুধবার নির্বাচনি সরঞ্জামসহ ভোটগ্রহণে নিয়োজিতরা সকল ভোটকেন্দ্রে পৌঁছে গেছেন।
পুঠিয়া প্রতিনিধি জানান, পুঠিয়ায় দুটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আজ বৃহস্পতিবার। সকাল ৮টা থেকে বিরতিহীনভাবে বিকেল ৪টা পর্যনত্ম প্রতিটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হবে। তবে প্রথমবারের মত পুঠিয়া সদর ইউনিয়নে ইভিএম’র মাধ্যমে ভোট গ্রহণ হলেও জিউপাড়া ইউনিয়নে ব্যালটের মাধ্যমেই ভোট গ্রহণ হচ্ছে। ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। এছাড়াও নির্বাচনি এলাকায় যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে মাঠে পর্যাপ্ত পরিমাণে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন রয়েছে।
রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে দুটি ইউনিয়নে আ’লীগের দলীয় প্রার্থীসহ ৫ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে পুঠিয়া সদর ইউনিয়নে ৩ জন ও জিউপাড়া ইউনিয়নে ২ জন। এরা হলেন, পুঠিয়া সদর ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনিত আশরাফ খাঁন (নৌকা), আ’লীগ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র আইয়ুব আলী (মোটরসাইকেল), বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহের আলী (আনারস), জিউপাড়া ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনিত হোসনেয়ারা বেগম (নৌকা) এবং বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়নাল আবেদিন (আনারস)।
দুই ইউনিয়ন মিলে মোট ভোটার সংখ্যা ৩৪ হাজার ৫ শ ৪৬ জন। এদের মধ্যে পুঠিয়া সদর ইউনিয়নে ১১ হাজার ৬ শ ১৫ জন এবং জিউপাড়া ইউনিয়নে ২২ হাজার ৯ শ ৩১ জন। পুঠিয়া ইউনিয়নে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ৫ হাজার ৭ শ ৪৪ জন এবং মহিলা ভোটার রয়েছে ৫ হাজার ৮ শ ৭১ জন। অন্যদিকে জিউপাড়া ইউনিয়নে পুরুষ ভোটার রয়েছে ১১ হাজার ৪ শ ৮০ জন এবং মহিলা ভোটার ১১ হাজার ৪ শ ৯১ জন।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সাকিল উদ্দিন আহম্মেদ জানান, দুটি ইউনিয়নের মোট ১৮টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১০টি কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। বাকি ৮টি কেন্দ্রেকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। নির্বাচনে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, আনসার বাহিনী ছাড়াও সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা টহল দেবে। যে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নির্বাচনে ৩ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে রয়েছে।
নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জয়নুল আবেদিন জানান, ভোট গ্রহণকে কেন্দ্র করে দুটি ইউনিয়নের কেন্দ্রগুলোতে নির্বাচনি সামগ্রী প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, পুঠিয়া সদর ইউনিয়নে ইভিএম’র মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হলেও জিউপাড়া ইউনিয়নে ব্যালটের মাধ্যমেই ভোট গ্রহণ হবে। শতভাগ সুষ্ঠু ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।
তানোর প্রতিনিধি জানান, উপজেলার কলমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন আজ বৃহস্পতিবার। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। বুধবার বিকেলের মধ্যে কলমা ইউপি’র ১০টি ভোট কেন্দ্রে নির্বাচনি উপকরণ ও নির্বাচনি কাজে নিয়োজিতরা কেন্দ্রে পৌছে যান। প্রতিটি কেন্দ্রে নিরাপত্তার জন্য ৬ জন পুলিশ ও ১৭ জন করে আনসার ও বিডিপি’র সদস্যরা নিয়োজিত থাকবেন। কলমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন আ’লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের প্রার্থী কলমা ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপন এবং আ’লীগ নেতা একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী রেজাউল ইসলাম মোটরসাইকেল প্রতিকে লড়ছেন। উলেস্নখ্য, গত ১০ ফেব্রুয়ারি কলমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদ ছেড়ে লুৎফর লশিদ হায়দার ময়না উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করায় পদটি শূন্য হয়। কলমা ইউনিয়নে ৯টি ওয়ার্ডে ১০টি ভোট কেন্দ্রে মোট ২৪ হাজার ৬ শ ৫৬ জন। এর মধ্যে পুরম্নষ ১১ হাজার ৯ শ ৫১ জন ও নারী ১২ হাজার ৭ শ ৫ জন।