স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মেডিকেল কলেজের (রামেক) এক ছাত্রকে অপহরণের মামলায় এক পুলিশ কর্মকর্তার ছেলেকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানা পুলিশ তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়।
গ্রেপ্তার যুবকের নাম সোহাগ আল হাসান (২২)। তার বাবার নাম আবদুর রহমান। নগরীর লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া মহলস্নায় তার বাড়ি। আবদুর রহমান পুলিশেরই একজন পরিদর্শক। বর্তমানে তিনি পাবনায় কর্মরত।
তার ছেলে সোহাগের বিরম্নদ্ধে অভিযোগ, আহসানুল ইসলাম সাফি (২০) নামে রামেকের প্রথম বর্ষের এক ছাত্রকে তিনি অপহরণ করে চট্টগ্রামে নিয়ে গিয়েছিলেন। আহসানুল ইসলামেরও বাড়ি লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া মহলস্নায়। তার বাবা আমিনুল ইসলাম বগুড়া পলস্নী উন্নয়ন অ্যাকাডেমির মহাপরিচালক।
নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন খান জানান, গত ৩ জুলাই সোহাগ কৌশলে আহসানুলকে অপহরণ করে চট্টগ্রামে নিয়ে যান। পরে ৬ জুলাই সেখান থেকে তাকে পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার করে আনেন পরিবারের সদস্যরা। এ নিয়ে ১১ জুলাই মামলা করেন আহসানুলের বাবা।
এরপর থেকে অভিযুক্ত সোহাগ পলাতক ছিলেন। সোমবার রাতে বাড়ি ফিরলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর মঙ্গলবার তাকে আদালতে তোলা হয়। এ সময় আদালত তাকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠিয়েছেন বলেও জানান রাজপাড়া থানার ওসি শাহাদাত হোসেন খান।