বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : দেশব্যাপী নারী-শিশু ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) পথনাটক ‘বিচার দাবি’ প্রদর্শিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি স’ানে এ নাটক প্রদর্শিত হয়। নাটকটির আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোট।
নাটকের দৃশ্যে দেখানো হয়, চেয়ারম্যানের ছেলে একটি মেয়ের সম্ভ্রম কেড়ে নেয়। এমতবস’ায় মেয়েটি অজ্ঞান হয়ে যায়। মেয়েটি জ্ঞান ফিরে পাওয়ার পর বাড়িতে গিয়ে তার মাকে ঘটনাটি খুলে বলে। পরে তার মা বিচারের জন্য চেয়ারম্যানের কাছে যান। কিন’ চেয়ারম্যান তারা অপরাধী সন্তানের বিচার না করে তার দোষ লুকানোর তদবির শুর্ব করেন। একসময় সফল হন তিনি। কিন’ মেয়েটি বিচার না পেয়ে উল্টো মানুষের কাছ লাঞ্ছিত হতে থাকেন। এক সময় আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় মেয়েটি।
নাটকটিতে অভিনয় করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিৰার্থী বাপ্পী কুমার, মামুন, আজম, নবনিতা, শহীদ, ঋতু, আদি, নবাব প্রমুখ। প্রদর্শনীর পাশাপাশি ধর্ষণ ও নারী নিপীড়ন বিরোধী সমাবেশ ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সংগঠনের সভাপতি ম-লির সদস্য আজম হোসেনের সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের শিৰক সুখন সরকারসহ সাবেক সাংস্কৃতিক কর্মী নৃপেন হাজরা উপসি’ত ছিলেন। সমাবেশটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক তমালিকা বিশ্বাস সঞ্চালানা করেন।