স্টাফ রিপোর্টার: ভাষাসৈনিক আবুল হোসেন বলেছেন, কবিকুঞ্জের সাধারণ সভায় যারা উপসি’ত আছেন তারা সকলেই দেশ ও সমাজ সচেতন। সমাজের গুর্বত্বপূর্ণ অংশ। তাই দেশটাকে সঠিক পথে চালিত করতে ভূমিকা রাখতে হবে। যদি তা না পারেন তা হলে সামনে আমাদের কঠিন সমস্যা মোকাবিলা করতে হবে।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে নগরীর শাহমখদুম কলেজে কবিকুঞ্জের ৪র্থ সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
কুবিকুঞ্জের সভাপতি প্রফেসর র্বহুল আমিন প্রামানিকের সভাপতিত্বে সভার কাজ শুর্ব হয়। সভার শুর্বতে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন প্রফেসর গোলাম কবির, কবি আশফাকুল আশেকীন, কবি ও শিল্পী এমএ কাইউম ও কবি শফিকুল আলম শফিক। এতে শোক প্রস্তাব উপস’াপন করেন কবি আলমগীর মালেক।
জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের পর কবিতালেখ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন পর্ব আরম্ভ হয়। সভায় উপসি’ত রাজশাহীর বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। যারা শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন তারা হলেন, দৃষ্টির সাধারণ সম্পাদক কবি রেবেকা আসাদ, নিউগভ: ডিগ্রি কলেজের উপাধ্যৰ অধ্যাপক ওয়ালিউল আলম, এইচএসটিআই পরিচালক অধ্যাপক কবি কামর্বল ইসলাম, উদীচী রাবির সাধারণ সম্পাদক তমালিকা, রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মেলন পরিষদের সভাপতি আব্দুর রাকিব, আবৃত্তি পরিষদের মনিরা মিঠি প্রমুখ।
সাধারণ সভার শেষ পর্বে কবি প্রফেসর র্বহুল আমিন প্রামানিককে সভাপতি ও কবি আরিফুল হক কুমারকে সাধারণ সম্পাদক করে ২৫ সদস্যবিশিষ্ট কবিকুঞ্জের নতুন কমিটি গঠন করা হয়।