এফএনএস আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জাপানের কিয়োটোতে দেশের খ্যাতনামা এক অ্যানিমেশন স্টুডিওতে আগুন লেগে এ পর্যন্ত ১৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। দগ্ধ হয়েছে কমপৰে ৩৫ জন। এদের মধ্যে ১০ জনের অবস’া আশংকাজনক। স্টুডিওটিতে উদ্দেশ্যমূলকভাবে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় আরও কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে বলে জানিয়েছেন কিয়োটো দমকল বিভাগের কর্মকর্তা সাতোশি ফুজিওয়ারা।
প্রত্যৰদর্শীদের বরাতে পুলিশ জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার স’ানীয় সময় সকালে কিয়োটো অ্যানিমেশনের একটি তিনতলা ভবনে হঠাৎ করেই এক ব্যক্তি ঢুকে এক ধরনের দাহ্য পদার্থ ছড়িয়ে আগুন লাগিয়ে দেয়। সেখান থেকে আগুন ভবনের অন্যদিকে ছড়িয়ে পড়ে। ৪১ বছর বয়সী ওই সন্দেহভাজন ব্যক্তিও আগুনে দগ্ধ হয়েছে। তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কিয়োডো সংবাদ সংস’া। গার্ডিয়ান জানিয়েছে, কিয়োটো নগরীর ওই স্টুডিওতে আগুনের সূত্রপাতের প্রায় দুই ঘণ্টা পরেও আগুন জ্বলতে দেখা যায়। কিয়োটো দমকল বিভাগের এক মুখপাত্র জানান, আগুনের খবর পেয়ে ঘটনাস’লে ৩৫টি ফায়ার ইঞ্জিনসহ আগুন নেভানোর সরঞ্জামবাহী অন্যান্য কয়েকটি ছোট গাড়ি পাঠানোর দু’ঘণ্টারও বেশি সময় চেষ্টার পর আগুন নেভানো সম্ভব হয়। কিয়োটো অ্যানিমেশন তার উচ্চ মানসম্পন্ন অ্যানিমেশন প্রোডাকশনের জন্য বিখ্যাত। স্টুডিওটি নির্মিত চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘সাউন্ড! ইউফোনিয়াম’, ‘আ সাইলেন্ট ভয়েস’ এবং ‘ভায়োলেট এভারগ্রিন’।