স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীসহ দেশের সবগুলো শিড়্গাবোর্ডের অধীনে চলতি সালের উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীড়্গার ফলাফল গতকাল বুধবার প্রকাশ করা হয়েছে। এবার পাসের হার বেড়েছে। সার্বিকভাবে পাস করেছে ৭৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ শিক্ষার্থী। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে মোট ৪৭ হাজার ২৮৬ জন শিক্ষার্থী। গত বছর এ পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ৬৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ, জিপিএ-৫ পেয়েছিল ২৯ হাজার ২৬২ জন। এবার রাজশাহী বোর্ডে পাসের হার ও জিপিএ ৫ দুই-ই বেড়েছে।
গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ফলাফলের সারসংক্ষেপ হসত্মানত্মর করেন। শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরীসহ বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭৩ দশমিক ৯৩ শতাংশ পাসের হারকে ‘যথেষ্ট গ্রহণযোগ্য ও ভালো’ ফলাফল হিসেবে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, আমি মনে করি আমাদের শিক্ষার দিকে মনোযোগ দিলে ধীরে ধরে আরো ভালো রেজাল্ট করতে পারবে। সেটা আমার বিশ্বাস। কারণ আমি মনে করি ছেলেমেয়েরা ফেল করবে কেন? আমরা কতগুলো উদ্যোগও নিয়েছি যাতে আমাদের ছেলেমেয়েরা পড়ালেখায় মনোযোগী হয়।
যারা এবার পাস করেছে তাদের অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী। আর যারা পাস করতে পারেনি তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, মন খারাপ করার কিছু নেই, আবার পরীক্ষা দেবে। এখন তো আরেকটা সুবিধাও আমরা করে দিয়েছি নীতিমালায়। একটা বা দুটো বিষয়ে যদি ফেল করে সেগুলোই আবার দিতে হবে, পুনরায় সব পরীক্ষা আবার দিতে হবে না। শেখ হাসিনা বলেন, আমারা এ সুযোগগুলো সৃষ্টি করে দিয়েছি যতে আমাদের ছেলেমেয়েরা পাস করে, তারা নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে, স্বউদ্যোগে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পারে, এবং বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করতে পারে।
শিক্ষামন্ত্রী জানান, দশ শিক্ষা বোর্ডে এবার সব মিলিয়ে পরীক্ষার্থী ছিল ১৩ লাখ ৩৬ হাজার ৬২৯ জন। তাদের মধ্যে পাস করেছে ৯ লাখ ৮৮ হাজার ১৭২ জন।
এর মধ্যে এইচএসসিতে আট সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে ৭১ দশমিক ৮৫ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪১ হাজার ৮০৭ জন। মাদ্রাসা বোর্ডে এবার পাস করেছে ৮৮ দশমিক ৫৬ শতাংশ শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে ২ হাজার ২৪৩ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। আর কারিগরি ও ভোকেশনাল বোর্ডে পাসের হার এবার ৮২ দশমিক ৬২ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ হাজার ২৩৬ জন।
এবার এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ৪১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোনো শিক্ষার্থী পাস করতে পারেনি। আর ৯০৯টি প্রতিষ্ঠান থেকে পরীক্ষায় অংশ নেওয়া সব শিক্ষার্থীই পাস করেছে।
বেশ কয়েক বছর ধরে পাবলিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে ফাঁস হলেও এবার প্রশ্ন ফাঁসের কোনো ধরনের অভিযোগ ছাড়াই উচ্চ মাধ্যমিকের সব পরীক্ষা শেষ হয়।
এদিকে, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের ফল প্রকাশ করছেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, সচিব ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আনারম্নল হক প্রামানিক।
রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে এবার এইচএসসি পরীক্ষায় ৭৬ দশমিক ৩৮ শতাংশ পাস করেছে। গতবার পাসের হার ছিল ৬৬ দশমিক ৫১ শতাংশ। এবার পাসের হার বেড়েছে ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ। ১ লাখ ৪৮ হাজার ৬৭২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১ লাখ ১৩ হাজার ৫৫০ জন কৃতকার্য হয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার ৭২৯ পরীক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে। এবার রাজশাহী বোর্ডে গতবারের চেয়ে পাসের হার ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ বেশি। এবার জিপিএ পাঁচ পেয়েছে ৬ হাজার ৭শ’ ২৯জন। গতবারের তুলনায় এই সংখ্যা ২ হাজার ৫শ’ ৯১ জন বেশি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো জানান, রাজশাহী জেলায় পাসের হার ৮২.৭৪ শতাংশ। এই জেলায় ২৯ হাজার ৬৪২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ২৪ হাজার ৫২৬ জন। আর জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ হাজার ১২৪ জন। এছাড়া বগুড়া ৭৮ দশমিক ০৮, নাটোর ৭২ দশমিক ৯০, সিরাজগঞ্জ ৭১ দশমিক ২৯, পাবনা ৬৯ দশমিক ১৩, জয়পুরহাট ৬৪ দশমিক ৮৪, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৬৪ দশমিক ৪০ ও নওগাঁ জেলায় ৬৩ দশমিক ৫৬ শতাংশ।
এবার রাজশাহী বোর্ডে এক বিষয়ে অকৃতকার্য হয়েছে ২৬ হাজার ৮২৮ জন। শূণ্য ফলাফল প্রাপ্ত কলেজ ৭, শতভাগ পাসকৃত কলেজ ৩৪ ও বহিস্কার ১৪ জন। এবার দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ২২ জনের মধ্যে পাস করেছে ১৮ জন, শারীরিক প্রতিবন্ধী ১৯ জনের মধ্যে পাস করেছে ১২ জন ও হাজতে থাকা ৪ জনের মধ্যে ১ জন পাস করেছে।