স্টাফ রিপোর্টার: এইচএসসির ফলাফলে দেশসেরা রাজশাহী কলেজে এবার শতভাগ পাস হয়নি। ফেল করে গেছেন ব্যবসায় শিড়্গা বিভাগের এক শিড়্গার্থী। আটটি পরীড়্গায় অংশ নিলেও শারীরিক অসুস্থতার কারণে সে দুটি পরীড়্গায় অংশ নিতে পারেনি। তাই ফলাফলে তার ফেল এসেছে।
মোট ৫৯৭ জন পরীড়্গার্থীর মধ্যে একমাত্র তারই ফলাফল ফেল। রাজশাহী কলেজের অধ্যড়্গ প্রফেসর হবিবুর রহমান বলেন, এটা একটা দুর্ঘটনা। তাই মন খারাপের কিছু নেই। তবে শতভাগ পাস হলে তো অবশ্যই আরও বেশি ভাল লাগতো। কারণ, ২০১০ সাল থেকেই আমরা শতভাগ পাস করে আসছি। মাঝে শুধু ২০১৭ সালে একজন ফেল করেছিল। এবার পাসের হার ৯৯ দশমিক ৯ শতাংশ।
একজন ফেল করলেও সামগ্রিকভাবে রাজশাহী কলেজের ফলাফল এবার গতবছরের চেয়েও ভাল। এ বছর মোট ৫৯৭ জন পরীড়্গার্থী পরীড়্গায় অংশ নিয়েছে। এদের মধ্যে ৪৮৮ জনই পেয়েছে জিপিএ-৫। গত বছর ৫৮৬ পরীড়্গার্থীর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৪১৫ জন। অবশ্য গতবার ছিল শতভাগ পাস।
এ বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ৩২৭ জন পরীড়্গার্থী পরীড়্গায় অংশ নিয়ে ৩২২ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। মানবিক বিভাগের ১৪৪ জনের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৫ জন। আর ব্যবসায় শিড়্গা বিভাগের ১২৭ জন পরীড়্গার্থীর মধ্যে ৭১ জন পেয়েছে জিপিএ-৫। ফেল করেছে একজন।
গত বছর বিজ্ঞান বিভাগের ৩০৬ জন শিড়্গার্থীর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ২৮৮ জন। ব্যবসায় শিড়্গা বিভাগের ১৩৬ শিড়্গার্থীর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৬১ জন। আর মানবিক বিভাগের ১৪৪ জনের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৬৬ জন। গত বছরের তুলনায় এবারের ফলাফল ভাল।