এফএনএস আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের আসামে মৌসুমী ভারী বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যায় এ পর্যন্ত ৭ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বন্যায় পৱাবিত হয়েছে আসামের ৩৩টির মধ্যে ২৫টি জেলা। ব্রহ্মপুত্র নদসহ অন্য ৫টি নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করায় আক্রান্ত হয়েছে ১৫ লাখেরও বেশি মানুষ। আগামী কয়েক ঘণ্টায় আরও বেশি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়ে বলা হয়েছে, পরিসি’তি আরও খারাপ হতে যাচ্ছে। দুর্যোগের কারণে আসামজুড়ে সব ধরনের ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। বন্যার্তদের সহায়তায় চালু হয়েছে ৬৮টি ত্রাণ শিবির। সেগুলোতে ২০ হাজারেরও বেশি মানুষকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। বারপেটা জেলার অবস’া সবচেয়ে খারাপ। সেখানে বন্যায় বাস’চ্যুত হয়েছে ৫ লাখেরও বেশি মানুষ। বন্যায় এনসেফেলাইটিস রোগের প্রাদুর্ভাবের কারণে আগামি সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজ্যের স্বাস’্য অধিদপ্তরের ছুটি বাতিল করেছে আসাম সরকার। আসামের সর্বশেষ বন্যা পরিসি’তি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোওয়াল। অমিত শাহ এ নিয়ে ইতোমধ্যে উচ্চ পর্যায়ে এক বৈঠকে আসাম পরিসি’তিতে করণীয় নিয়ে পর্যালোচনা করেছেন।