এফএনএস: লন্ডনে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে জীবনাবসান হয়েছে দৈনিক সংবাদের ক্রীড়া সম্পাদক অজয় বড়ুয়ার। তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। গতকাল শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টায় লন্ডনের সেন্ট বার্টস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস’ায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন অজয় বড়ুয়া। তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলেসহ অসংখ্য শুভানুধ্যায়ী ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করে দৈনিক সংবাদের চিফ রিপোর্টার সালাম জুবায়ের জানান, আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ কাভার করতে লন্ডনে গিয়েছিলেন অজয় বড়ুয়া। তবে সেখানে অবস’ানকালে তিনি অসুস’ হয়ে পড়েন। ১২ দিন ধরে লন্ডনের সেন্ট বার্টস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন অজয় বড়ুয়া। শারীরিক অবস’ার অবনতি হওয়ায় তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) স’ানান্তর করা হয়। অজয় বড়ুয়ার লাশ দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান সালাম জুবায়ের। ব্যক্তিজীবনে ফুটবলার ও ক্রিকেটার অজয় বড়ুয়া প্রায় পাঁচ দশক ধরে ক্রীড়া সাংবাদিকতায় যুক্ত ছিলেন। তিনি ১৯৭৪ সালে দৈনিক সংবাদে যোগ দেন। খেলাধুলায় বিশেষ অবদানের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ‘বৱু ’ পদকও পান জগন্নাথ হলের একসময়ের ক্রীড়া সম্পাদক।
জিএম কাদেরের শোক: মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক অজয় বড়ুয়ার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের। গতকাল শুক্রবার এক শোকবার্তায় তিনি প্রয়াত এ সাংবাদিকের আত্মার শান্তি কামনা করেন। পাশাপাশি শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানান।
শোকবার্তায় জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলেন, সাংবাদিক অজয় বড়ুয়া দেশমাতৃকার স্বাধীনতা সংগ্রামে কৃতিত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন। একজন সফল ক্রীড়াবিদ হিসেবে সমাদৃত ছিলেন শিক্ষাজীবন থেকেই। সাংবাদিকতা জীবনেও সত্য ও ন্যায়ের পথে ছিলেন অবিচল। নতুন প্রজন্মের গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে সাংবাদিক অজয় বড়ুয়া আদর্শ হয়ে থাকবেন। প্রায় পাঁচ দশক ক্রীড়া সাংবাদিকতার উন্নয়নে অজয় বড়ুয়ার অবদান অক্ষয় হয়ে থাকবে।
সাংবাদিক অজয় বড়ুয়ার মৃত্যুতে জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান এবং বিরোধী দলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ এবং পার্টির মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গাও শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।