বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : রূপালী ব্যাংক রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রম্নয়েট) শাখায় নিরাপত্তাপ্রহরীর গলা কেটে ডাকাতির চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আহত প্রহরী লিটনকে (২৬) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে মতিহার থানায় মামলা হয়েছে।
রূপালী ব্যাংকের রম্নয়েট শাখা ম্যানেজার সোয়াইবুর রহমান খান বলেন, ব্যাংকের প্রহরী লিটন রাতে ফোন করে তাকে ডাকাতির কথা এবং তাকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেছে বলে জানায়। সে ‘আমাকে বাঁচান স্যার’ বলে আকুতি জানায়। প্রহরীর ফোন পেয়ে তিনি মতিহার থানার ওসিকে ফোন করেন। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে লিটনকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।
এদিকে, হাসাপাতালে দায়িত্বরত চিকিৎসক আমিনুল ইসলাম এবং সুব্রত কুমার জানান, গতকাল লিটনকে আনার পর তার অস্ত্রপচার করা হয়েছে। তবে ১২ ঘণ্টা পার না হলে এ বিষয়ে কিছু বলা যাবে না। অস্ত্রপচার শেষে বর্তমানে তাকে আইসিইউ-২ রাখা হয়েছে।
ম্যানেজার সোয়াইবুর রহমান খান আরও বলেন, ব্যাংকের সিসিটিভি ক্যামেরায় দেখা গেছে একজন মুখোশধারী ব্যাংকের তালা কেটে ব্যাংকের ভেতরে ঢোকে। এরপর তার কাছে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে প্রহরীর রম্নমে গিয়ে লিটনকে জবাই করার চেষ্টা করে। পরে ব্যাংকের সকল সিসি টিভি ক্যামেরা ডিসকানেক্ট করে দেয়। এরপর ব্যাংকের ভোল্ট ভাঙ্গার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে ডাকাত পালিয়ে যায়।
এদিকে, এ ঘটনায় অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামী করে ডাকাতি ও হত্যা চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে শাখা ব্যাংক ম্যানেজার সোয়াইবুর রহমান বাদি হয়ে নগরীর মতিহার থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। এ ব্যাপারে তদনত্ম চলছে বলেও তিনি জানান।
এ ব্যাপারে মহানগর পুলিশের মুখপাত্র সহকারী উপ-কমিশনার রম্নহুল কুদ্দুস বলেন, ব্যাংকে ডাকাতির জন্যই দুর্বৃত্তরা ভেতরে ঢুকেছিল। তারা ভোল্ট ভাঙার চেষ্টাও করেছিল। কিন্তু পারেনি। পুলিশ সিসি টিভির ফুটেজ ও প্রযুক্তির ব্যবহার করে এ ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছে।