৯৯৯ নম্বরে ফোন করে জরুরি সেবা নিয়েছে ৫৮ লাখ মানুষ

সোনালী ডেস্ক: বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার) বলেছেন, বাংলাদেশ পুলিশ ৯৯৯ সার্ভিস চালুর পর গত দুই বছরে ৫৮ লাখ মানুষকে সেবা দিতে পেরেছে। এতে জনগণ খুব উপকৃত হয়েছেন। এ সেবা অব্যাহত থাকবে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে পুলিশের কার্যক্রম আরও বৃদ্ধি করা হবে। এ সময় প্রত্যেক উপজেলায় চারটি করে হেল্পডেস্ক চালু করা হবে। প্রতিবন্ধী সেবা ডেস্ক, বয়স্ক সেবা ডেস্ক, নারী শিশুদের জন্য ডেস্ক এবং অসহায় নারী শিশুদের জন্য অ্যাপস চালু হবে।অ্যাপস চালুর বিষয়টি এখনও পরীক্ষাধীন।
গতকাল বুধবার দুপুরে নেত্রকোনা জেলা পুলিশের বার্ষিক সমাবেশ উপলক্ষে নেত্রকোনা সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী এসব কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে পুলিশের ভ‚মিকা অনন্য। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জঙ্গিবাদ দমন করতে গিয়ে আট পুলিশকে জীবন দিতে হয়েছে। পুলিশ দেশ থেকে জঙ্গিবাদ দমনে নিরলসভাবে কাজ করছে। তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি থানাকে জনবান্ধব থানা হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। আমরা সত্যিকার অর্থেই জনগণের পুলিশ হতে চাই। থানাগুলোকে সেভাবেই গড়তে চাই। আইজিপি বলেন, দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ সচেষ্ট। এক হাজার লোকের জন্য মাত্র একজন পুলিশ। তা দিয়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ খুবই সমস্যা এবং এ দিয়ে সেবা দান করা খুব কঠিন। পুলিশ এ ব্যাপারে তৎপর।
এসময় উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি অব পুলিশ ব্যারিস্টার মো. হারুন অর রশিদ, জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম, নেত্রকোনার পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এম আশরাফুল আলম। পরে তিনি পুলিশ লাইন্স মাঠে নেত্রকোনা পুলিশের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদ্বোধন ও পুরস্কার বিতরণ করেন।

শর্টলিংকঃ