৭ মার্চের ভাষণের প্রতিটি লাইন পড়তে ও বুঝতে হবে: মেয়র

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের প্রতিটি লাইন, শব্দ পড়তে হবে, শুনতে হবে, বুঝতে হবে। বঙ্গবন্ধুর এই ভাষণটি বাঙালি জাতিকে এক হাজার বছর দাসত্বের পর বীরের জাতিতে পরিণত করেছিল।
গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষ্যে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন মেয়র।
তিনি আরো বলেন এক হাজার বছর আমরা গোলামী করতে বাধ্য হয়েছি। আমাদের শস্য-শ্যামলা মাটি, ফসল এতো বেশি হয়, এজন্য এদেশে মুঘলেরা, বিট্রিশরা, পরে পাকিস্তানীরা শাসন-শোষন করে নিঃস্ব করেছিল প্রায়। এই বাঙালি জাতিকে তৈরি করলেন বঙ্গবন্ধু। যে বাঙালি শোষিত হয়েছে, হাতে লাঠি ছাড়া আগ্নেয়াস্ত্র ধরেনি কখনো, সেই বাঙালি ৭ই মার্চের পর থেকে যুদ্ধের জন্য অস্ত্রসম্বলিত বাঙালিতে পরিণত হলো।
সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সহ-সভাপতি সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী বলেন, আজকের দিনটি বাঙালি জাতির স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের এক অনন্য দিন।
মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বীর ইকবাল ও অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা। সভায় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাঈমুল হুদা রানা, সাবেক দপ্তর সম্পাদক প্রভাষক কামরুজ্জামান, সাবেক যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, সাবেক উপ-প্রচার সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহম্মেদ লিমন, সাবেক সদস্য আহসানুল হক পিন্টু, মহানগর যুবলীগ সভাপতি রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন বাচ্চু, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আব্দুল মমিন, সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকারসহ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

শর্টলিংকঃ