৬৪ উপজেলায় অ্যাপের মাধ্যমে বোরো সংগ্রহ করবে সরকার

সোনালী ডেস্ক: অ্যাপের মাধ্যমে ১৬ উপজেলার কৃষকদের কাছ থেকে আমন ধান সংগ্রহে সফলতা আসায় এবার সব জেলার একটি করে অর্থাৎ দেশের ৬৪ উপজেলায় একই প্রক্রিয়ায় বোরো সংগ্রহ করবে সরকার। আমন সংগ্রহ নিয়ে গতকাল বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এ তথ্য জানান। কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাকও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এবার ৬ লাখ ২৬ হাজার ৯৯১ মেট্রিকটন আমন ধান, ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৮ টন সিদ্ধ চাল এবং ৪৩ হাজার ৯০০ টন আতপ আমন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ছিল সরকারের। সেজন্য কৃষি মন্ত্রণালয় থেকে তালিকা সংগ্রহ করা হয়। সর্বপ্রথম এবার ৬ লাখ ২৭ হাজার টন আমন ধান সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। কৃষকদের নায্যমূল্য দেওয়ার জন্য আমাদের এই প্রয়াস। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, প্রকৃত কৃষক যেন ধান দিতে পারে এবং কোনো মধ্যস্বত্বভোগী যেন এর মধ্যে আসতে না পারে সেজন্য লটারি করে কৃষক নির্বাচন করা হয়েছে। ১৬ উপজেলায় অ্যাপের মাধ্যমে আমন ধান কেনা হয়েছে। অ্যাপের মাধ্যমে ওই ১৬ উপজেলায় এবার বোরো ধান কেনা হবে। এ ছাড়া বাকি ৪৮ জেলার সদর উপজেলা থেকেও অ্যাপের মাধ্যমে বোরো ধান কেনা হবে।
স্বচ্ছতার সঙ্গে আমন ধান সংগ্রহের চেষ্টার কথা তুলে ধরে সাধন চন্দ্র বলেন, কিছু ভুলক্রটি থাকতেই পারে। তবে কৃষি এবং খাদ্য মন্ত্রণালয় একসাথে কাজ করলে ভালো কিছু করা যায় এটা তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। চাকরির মেয়াদ অল্প থাকা কর্মকর্তাদের বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের (বিএসএফএ) চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয়াকে সংস্থাটির কার্যকর হয়ে ওঠার ক্ষেত্রে বড় সমস্যা বলে উল্লেক করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ গঠনের পাঁচ বছর পেরিয়ে গেলেও, এটি এখনও কার্যকর হতে পারেনি- এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের জনবল ছিল না। ইতোমধ্যে তারা জনবল নিয়োগ দিয়েছে। প্রত্যেক জেলায় অফিস করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তবে মূল সমস্যাটা হচ্ছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষে যিনিই আসেন, তারই দেড়মাস-দুই মাস চাকরি থাকে। একজন যাওয়ার পর আরেকজন আসলেন, তিনি দুইমাস-আড়াইমাস পর চলে গেলেন। এরপর চেয়ারম্যান দিতে দিতে, আজ দেব, কাল দেব, দিতে দিতে জনপ্রশাসন…ওইখানে একজন শক্ত লোক ছাড়া কিন্তু হবেও না। তিনি বলেন, জনপ্রশাসন অনেক চয়েজ করে একজনকে দিয়েছে, সেটা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকেই দেয়া হয়েছে। উনি আগামী রোববার জয়েন করবেন। আমরা চরম আশাবাদী যে, নতুন জনবল নিয়োগ দেয়া হয়েছে তাদের নিয়ে মাঠে একেবারে সচেষ্টভাবে ঝাঁপিয়ে পড়ব।
খাদ্য সচিব মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম বলেন, এবার সব জেলার একটি করে উপজেলায় পাইলট ভিত্তিতে অ্যাপের মাধ্যমে বোরো ধান কেনা হবে। আর যে ১৬ উপজেলায় অ্যাপের মাধ্যমে আমন ধান কেনা হয়েছে সেসব উপজেলায় অ্যাপের মাধ্যমে মিলারদের কাছ থেকে বোরো চাল কেনা হবে। কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামান ছাড়াও উভয় মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

শর্টলিংকঃ