২১ দিনের জন্য ভারত লকডাউন

সোনালী ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী মহামারি আকার ধারণ করা করোনাভাইরাসের কারণে পুরো ভারতকে ২১ দিনের জন্য লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে এই ঘোষণা কার্যকর হবে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে মোদি এই লকডাউনের ঘোষণা দেন। মোদি বলেন, ‘এটাও এক ধরনের কারফিউ। কেউ বাড়ি থেকে বেরতে পারবেন না। এভাবেই করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচানো সম্ভব।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘২১ দিন নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে ২১ বছর পিছিয়ে যেতে হবে আপনাদের।’
মোদি বলেন, ‘হাত জোড় করে প্রার্থনা করছি। আপনি সেইসব লোকের জন্য ভাবুন, যারা নিজেদের কর্তব্যের জন্য প্রাণের মায়া ত্যাগ করে লড়াই করছেন।’ প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, ‘জনসমাগম বন্ধ করলেই করোনা ঠেকানো যাবে। এই ভয়াবহ পরিসি’তিতে আমি সবাইকে অনুরোধ করছি, বাড়ির বাইরে বেরোবেন না। পাশাপাশি, এই ভয়াবহ পরিসি’তিতেও যারা বাড়ির বাইরে বেরিয়ে কাজ করছেন, তাদের জন্য প্রার্থনা করবেন।’ ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, কিছু মানুষ ভাবছেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা শুধু আক্রান্তদের জন্যই প্রয়োজন। এই ধারণা ভুল। প্রত্যেক পরিবারের জন্য এটা প্রয়োজন। করোনা থেকে বাঁচার আর কোনো উপায় নেই।
গতকাল মঙ্গলবার রাত ১২টা থেকে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত ভারতজুড়ে জারি থাকবে এই কারফিউ। সেইসঙ্গে মোদি জানিয়েছেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় সব জিনিস বাজারে পাওয়া যাবে। খাদ্যদ্রব্য, ওষুধপত্র কেনার জন্য সাধারণ মানুষ বাইরে বেরোতে পারবেন। কারফিউর মাঝেও হাসপাতাল, ব্যাংক, থানা খোলা থাকবে বলে জানিয়েছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী। এর আগে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে মোদির আহ্বানে একদিন ‘জনতার কারফিউ’ কর্মসূচি পালিত হয় ভারতজুড়ে।

শর্টলিংকঃ