১৯ মার্চই হচ্ছে ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা

  • 2
    Shares

অনলাইন ডেস্ক: করোনার কারণে আসন্ন ৪১তম বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) পরীক্ষা পেছানোর দাবি জানিয়েছে পরীক্ষার্থীদের একটি অংশ। তবে এ পরীক্ষা পেছানো হবে না বলে জানিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

বুধবার (৩ মার্চ) বিকেলে পিএসসিতে এক অনির্ধারিত সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সেখানে যথাসময়ে এ পরীক্ষা নেওয়ার জন্য সবাই মত দেন।

৪১তম সাধারণ বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা ১৯ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে একযোগে পরীক্ষা নেওয়া হবে। পরীক্ষায় আবেদনকারীর সংখ্যা চার লাখ ৭৫ হাজার। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য নতুন কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে পিএসসি।

পিএসসি চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন ঢাকা পোস্টকে বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী ১৯ মার্চ ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বেঞ্চে একজন করে বসবেন। আসন বিন্যাস হবে ইংরেজি জেড ‘Z’ আকৃতির। পরীক্ষা আয়োজনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতা চেয়ে আবেদন করলে তারা সম্মতি দিয়েছে।

২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি। এতে বিভিন্ন পদে ২ হাজার ১৩৫ কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী সবচেয়ে বেশি নিয়োগ দেওয়া হবে শিক্ষা ক্যাডারে। এ ক্যাডারে ৯১৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এরমধ্যে বিসিএস শিক্ষায় প্রভাষক ৯০৫ জন, কারিগরি শিক্ষা বিভাগে প্রভাষক ১০ জন নেওয়া হবে।

শিক্ষার পর বেশি নিয়োগ হবে প্রশাসন ক্যাডারে। এ ক্যাডারে ৩২৩ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। পুলিশে ১০০ জন, সহকারী সার্জন ১১০ জন ও সহকারী ডেন্টাল সার্জন ৩০ জনকে নেওয়া হবে। এছাড়া পররাষ্ট্রে ২৫ জন, আনসারে ২৩ জন, অর্থ মন্ত্রণালয়ে সহকারী মহাহিসাবরক্ষক (নিরীক্ষা ও হিসাব) ২৫ জন, সহকারী কমিশনার (কর) ৬০ জন, সহকারী কমিশনার (শুল্ক ও আবগারি) ২৩ জন ও সহকারী নিবন্ধক হিসেবে ৮ জনকে নেওয়া হবে।

পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগে পরিসংখ্যান কর্মকর্তা ১২ জন, রেলপথ মন্ত্রণালয়ে সহকারী যন্ত্র প্রকৌশলী ৪ জন, সহকারী ট্রাফিক সুপারিনটেনডেন্ট ১ জন, সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক ১ জন, সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল) ২০ জন, সহকারী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) হিসেবে ৩ জনকে নেওয়া হবে। তথ্য মন্ত্রণালয়ে সহকারী পরিচালক বা তথ্য কর্মকর্তা বা গবেষণা কর্মকর্তা ২২ জন, সহকারী পরিচালক (অনুষ্ঠান) ১১ জন, সহকারী বার্তা নিয়ন্ত্রক ৫ জন, সহকারী বেতার প্রকৌশলী ৯ জন, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলে সহকারী প্রকৌশলী ৩৬ জন, সহকারী বন সংরক্ষক ২০ জনকে নেওয়া হবে।

সহকারী পোস্টমাস্টার জেনারেল পদে ২ জন, মৎস্যে ১৫ জন, পশুসম্পদে ৭৬ জন, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ১৮৩ জন ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ৬ জন,  সহকারী নিয়ন্ত্রক (বাণিজ্য) ৪ জন এ বিসিএসে নিয়োগ পাবেন। পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ৪ জন, সহকারী খাদ্য নিয়ন্ত্রক ৬ জন ও সহকারী রক্ষণ প্রকৌশলী ২ জন, গণপূর্তে সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল) ৩৬ জন ও সহকারী প্রকৌশলী (ই/এম) হিসেবে ১৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

 

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ