১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন না মানলে ৬ মাসের জেল

সোনালী ডেস্ক: প্রবাসী ব্যক্তিরা দেশে ফিরে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন না মানলে সর্বোচ্চ ছয় মাসের জেল বা এক লাখ টাকা জরিমানা করা হবে বলে নির্দেশনা দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গতকাল বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক জরুরি নির্দেশনায় এ শাস্তির কথা জানানো হয়।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় বিদেশফেরত ও তাদের সংস্পর্শে আসা সবাইকে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হলো। এ ক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষকে আপনার অবস্থান সম্পর্কে অবহিত করুন। নির্দেশনা লঙ্ঘন করলে জেল বা জরিমানা বা উভয় দÐ হতে পারে। নির্দেশনায় আরও বলা হয়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন জনসমাগম এড়িয়ে চলুন ও যার যার অবস্থান থেকে করোনা মোকাবিলায় জাতিকে সহায়তা করুন। এ নির্দেশনা না মানলে ‘সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন- ২০১৮’ এর ২৪(২) ধারা অনুযায়ী সর্বোচ্চ ছয় মাসের জেল বা সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দÐের মুখে পড়তে হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
ইতোমধ্যেই বিশ্বের অন্তত ১৭০টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। করোনা ভাইরাস নিয়ে আমরা গত দুই মাস যাবত কাজ করছি। ইতোমধ্যে চীনের করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে চলে আসলেও ইউরোপে অনেক বেড়ে গেছে। দেশেও করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে গেছে। দেশে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ১৭ জন। একজন মৃত্যুবরণ করেছে। সারাদেশে আমাদের গঠিত কমিটি বিদেশ থেকে আগত ৫ হাজারের বেশি লোক কোয়ারান্টিনে রাখা হয়েছে। আমরা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সব বিভাগের সব সংস্থার সব কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করেছে। মহাপরিচালকের অফিসে সমন্বিত একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ স্থাপন করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ