হত্যা মামলায় জামিন পেলেন ইউপি চেয়ারম্যান


স্টাফ রিপোর্টার: হত্যা মামলায় জামিন পেয়েছেন রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান বজলে রেজবী আল হাসান মুঞ্জিল। মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ ওএইচএম ইলিয়াস হোসাইন তার জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ২৯ নভেম্বর হরিপুর ইউপির কক্ষে মোফাজ্জল হোসেন (২৬) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় চেয়ারম্যানসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ১৫-২০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা হয়। মোফাজ্জল রাজশাহীর তানোর উপজেলার যুগলপুর গ্রামের ইসরাফিল মন্ডলের ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, হত্যা মামলা দায়েরের পর চেয়ারম্যান মুঞ্জিল উচ্চ আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেন। তখন উচ্চ আদালত ১৪ জানুয়ারির মধ্যে নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

এরপর মঙ্গলবার চেয়ারম্যান মুঞ্জিল রাজশাহী আদালতে হাজির হয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিন প্রার্থনা করেন। আদালত ওই মামলার পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না হওয়া পর্যন্ত তার জামিন মঞ্জুর করেন।

জানা গেছে, মোফাজ্জল হোসেন মৃত্যুর ১২ দিন আগে হরিপুর ইউনিয়নের নলপুকুর গ্রামে বিয়ে করেছিলেন। বিয়ের পর শ^শুরবাড়ি গেলেও মোফাজ্জলের স্ত্রী বাবার বাড়ি চলে আসেন। তিনি আর যেতে চাচ্ছিলেন না। বিষয়টির সমাধানে ২৮ নভেম্বর ইউপি কার্যালয়ে দুইপক্ষের লোকজন চেয়ারম্যানের সঙ্গে বসেছিলেন। সেই রাতে চেয়ারম্যান তাকে ইউপি কক্ষে আটকে রাখেন।

ভোরে তার লাশ পাওয়া যায়। স্বজনদের অভিযোগ, মোফাজ্জলকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল। এ নিয়ে নিহতের ভাই উজ্জল বাদী হয়ে দামকুড়া থানায় হত্যা মামলা করেন। এরই মধ্যে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ থেকে লাশের ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন দেয়া হয়েছে থানায়।

এতে বলা হয়েছে মোফাজ্জল গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবে এই প্রতিবেদন প্রত্যাখান করেছেন মোফাজ্জলের স্বজনেরা। তাদের দাবি, মোফাজ্জল হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ