সেই ‘ভয়ঙ্কর’ গৃহকর্মী রেখা আটক, নিয়ে আসা হচ্ছে ঢাকায়

  • 1
    Share

অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর মালিবাগের একটি ফাঁকা বাসায় ভয়ঙ্কর এক গৃহকর্মীর হাতে নির্যাতনের শিকার হন সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা। বৃদ্ধার লাঠি দিয়েই শুরু হয় মারধর। একের পর এক আঘাতে বৃদ্ধা মাটিতে লুটিয়ে পড়লেও গৃহকর্মীর রেখার নির্মমতা থামেনি। এরপর করা হয় মাথায় আঘাত।

গত সোমবার সকাল সোয়া ১০টায় মালিবাগের একটি বাসায় ঘটে এমন ঘটনা। এ ঘটনা আলোচিত হলে ঢাকা ছেড়ে রেখা পালিয়েছিলেন ঠাকুরগাঁওয়ে। অবশেষে ধরা পড়লেন তিনি।

বুধবার গভীর রাতে জেলার শাহজাহানপুর থানার একটি দল এই গৃহকর্মীকে গ্রেপ্তার করে।

ঘটনার পর প্রথমে ডেমরায় আশ্রয় নেয় রেখা। নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য পালিয়ে যায় ঠাকুরগাঁওয়ে মামার বাসায়। পরে রাণীশংকৈল ও বালিয়াডাঙ্গি থানার সীমান্তবর্তী কাশিপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ জানায়, চুরি করা টাকার মধ্যে এক লাখেরও বেশি খরচ করে ফেলেছিলেন। উদ্ধার করা হয় ৬০ হাজার টাকা, স্বর্নালঙ্কার ও মোবাইল ফোন। রেখাকে নিয়ে আসা হচ্ছে ঢাকায়। হাজির করা হবে আদালতে।

প্রসঙ্গত, ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, বছর তিনেক ধরে কিডনিসহ নানা সমস্যায় ভোগা এক বৃদ্ধা শুয়ে ছিলেন বিছানায়। পরম যত্নে তার সেবা করছেন রেখা নামের গৃহকর্মী। কিন্তু এরপরই দেখা গেল ভয়ঙ্কর গৃহকর্মীর কাণ্ড। সিসিটিভির ভিডিও ফুটেজটি প্রকাশ করে একটি বেসরকারি টেলিভিশন। এরপরই ইন্টারনেটে ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়।

গৃহকর্মীর পাশবিকতা দেখে আঁতকে উঠছে মানুষ। বৃদ্ধা মাকে দেখভালের জন্য রাখা হয়েছিল গৃহকর্মীকে। সেই গৃহকর্মীর নির্মম নির্যাতনেই এখন জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে সেই মা।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, ওই বৃদ্ধাকে নগ্ন করে চরম নির্যাতন চালিয়েছে সেই গৃহকর্মী। একপর্যায়ে হাতের কাছে যা পেয়েছে তা দিয়েই চালিয়েছে নির্যাতন।

ভিডিওতে আরো দেখা যায়, বৃদ্ধার গায়ের কাপড়-চোপড় খুলে তাকে জোর করে বাথরুমে ঢোকায় রেখা। শীতের সকালে বৃদ্ধার গায়ে ঢালা হয় ঠাণ্ডা পানি। কিন্তু ভেতরে গৃহকত্রীকে আটকাতে না পেরে বেরিয়ে আসে রেখার আসল চেহারা।

আলমারির চাবির জন্য বুকের উপর চেপে বসে। বঁটি হাতেও তেড়ে আসে রেখা। একসময় অসহায়ের মতো আত্মসমর্পণ করেন বৃদ্ধা। গলা থেকে চেইন খুলে নেয় রেখা। হাতের বালাও পরেন। চাবি দিয়ে আলমারি খুলতে ব্যর্থ হন। তারপরেই অসুস্থ বৃদ্ধাকে টেনে নিয়ে বাধ্য করেন আলমারি খুলে দিতে। ড্রয়ার খুলে স্বর্ণ, নগদ টাকা ও মোবাইল নিজের কব্জায় নেয় রেখা।

সোনালী/জেআর

শর্টলিংকঃ