সাকিবকে হত্যার হুমকিদাতা যেভাবে গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক: বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে হত্যার হুমকিদাতা মহসিন তালুকদার (৪০) সিলেট থেকে পালিয়ে এসেছিলেন সুনামগঞ্জে। লুকিয়ে ছিলেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পূর্ব পাগলা ইউনিয়নের রনসি গ্রামের একটি বাড়িতে। যে বাড়িটি ছিল তার ভায়রার। সেখান থেকে মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে র‌্যাবের একটি দল অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে।

র‌্যাব-৯-এর জ্যেষ্ঠ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবদুল্লাহ রাসেল জানান, সুনামগঞ্জে মহসিনের লুকিয়ে থাকার খবরে আগের রাতেই অভিযানে নামে র‌্যাবের তিনটি দল। তারা সুনামগঞ্জে থাকা মহসিনের বিভিন্ন আত্মীয় ও পরিচিত ব্যক্তিদের বাড়িতে খুঁজতে থাকে।

অবশেষে রনসি গ্রামের তার অবস্থানের কথা জানতে পারে। তবে মহসিনকে ধরতে বিশেষ কৌশল অবলম্বন করে র‌্যাব। মহসিনকে ধরতে সিলেট থেকে তার স্ত্রী ও স্থানীয় চেয়ারম্যানকে সুনামগঞ্জে নিয়ে আসা হয়। এক্ষেত্রে সূত্র মেলে আগের দিনেই। স্ত্রীর সঙ্গে মোবাইলে কথা বলার সময়ই মহসিনের অবস্থান নিশ্চিত হয় র‌্যাব। পরে তাকে ওই বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে সিলেট র‌্যাব কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

মহসিন সিলেট সদরের শাহপুর তালুকদারপাড়া গ্রামের আজাদ বক্স তালুকদারের ছেলে। এক সময় ব্যবসা করলেও মহসিন করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে ছিলেন বেকার।

গত শনিবার রাত ১২টার দিকে মহসিন তার ফেসবুক লাইভে সম্প্রতি কলকাতায় কালীপূজার একটি অনুষ্ঠানে সাকিবের উপস্থিতির কারণে তাকে কুপিয়ে হত্যার হুমকি দেন। পরদিন ভোর ছয়টার দিকে ফের লাইভে এসে আগের ভিডিওর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। সাকিবকে জাতির উদ্দেশে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান।

এ ঘটনায় সোমবার রাতে জালালাবাদ থানায় এসআই মাহবুব মোর্শেদ বাদী হয়ে মহসিনকে আসামি করে মামলা করেন।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ