সংযোগ সড়ক নির্মাণ হবে কবে?

  • 14
    Shares

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ব্যুরো: ২ বছরেও তিন কিলোমিটার সংযোগ সড়ক সম্প্রসারণে জমি অধিগ্রহণের কাজ শুরু না হওয়ায় শেখ হাসিনা সেতু এবং বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন জাহাঙ্গীর সেতুর সাথে এ সড়কটি নির্মাণ যেন পথ চেয়ে রয়েছে। ২ শ ৫৫ কোটি টাকা ব্যয়ে বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার যৌথ উদ্যোগে এ প্রকল্পটি নির্মাণ হওয়ার কথা রয়েছে।

জানা গেছে, ভৌগলিকভাবে উত্তরাঞ্চলের শেষ সীমান্তে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার অবস্থান। এ জেলা দেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রেখে চলেছে। দিন দিন যানবাহনের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি জেলা শহরের রাস্তাগুলো অপ্রশস্ত হওয়ায় যান চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে।

শহরের যানজট কমাতে বিকল্প হিসেবে দাউদপুর রোড, ঝিলিম রোড, করনেশন রোড ও গোদাগাড়ী লিংক রোড নিয়ে প্যাকেজ কর্মসূচি উদ্যোগ গ্রহণ করে সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদ সরকারের কাছে চাহিদাপত্র দেন।

তারই প্রেক্ষিতে সরকার এ প্রকল্প বাস্তবায়নে উদ্যোগ গ্রহণ করে এবং ২ শ ৫৫ কোটি টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্প ২০১৮ সালে ১৪ আগস্ট একনেকে অনুমোদিত হয়। এ প্রকল্পটি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা যৌথভাবে বাস্তবায়নে কাজ শুরুর কথা। বাস্তবায়নকাল ধরা হয় ২০১৮ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত।

কিন্তু এখন পর্যন্ত জমি অধিগ্রহণের কাজ শুরু হয়নি। এ সড়কটি বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন জাহাঙ্গীর ও শেখ হাসিনা সেতু হয়ে জেলা শহরের শেষ সীমানা দ্বারিয়াপুরের সাথে সংযোজিত হবে। সড়কটি নির্মাণ হলে জেলা শহরের উপর চাপ কমবে এবং দেশের ২য় বৃহত্তম স্থলবন্দর সোনামসজিদ থেকে আসা পণ্যবাহী ট্রাকসহ অন্যান্য যান চলাচলে সহজতর হবে।

দাউদপুর রোড এলাকার বাসিন্দা মিলন উর রহমান জানান, শহরের যানজট নিরসণে সড়ক প্রশস্তকরণে জমি অধিগ্রহণে সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা ইতিবাচক। তবে এটি এখনো বাস্তবায়ন না হওয়ায় তারা বিপাকে পড়েছেন। এ এলাকায় অনেক পুরাতন বাড়ি রয়েছে, সেগুলো বসবাসের অনুপযোগি হওয়ায় এ মুহুর্তে অনেকেই সংস্কার করতে পারছেন না।

এদিকে পরিবহন শ্রমিকেরা জানান, একমাত্র জেলা শহরের বিশ^রোড মোড় থেকে শান্তিমোড় ও শিবতলা মোড় পর্যন্ত সড়কটিতে যানজট লেগে থাকে। সড়কটি চাহিদানুযায়ী অপ্রশস্ত হওয়ায় এটি চলাচলে বাড়তি বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। সংযোগ সড়ক নির্মাণে কোন জটিলতা না থাকলে তা সংশ্লিষ্ট দপ্তর নিরসন করে সড়কটি নির্মাণে সচেষ্ট হবেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী সাদেকুল ইসলাম জানান, দাউদপুর রোড, ঝিলিম রোড, করনেশন রোড ও গোদাগাড়ী রোড নিয়ে ৪টি রাস্তার একটি প্যাকেজ গ্রহণ করে পৌরসভা। যা সাবেক এমপি আব্দুল ওদুদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সরকার অনুমোদন দেন।

তিনি আরও জানান, তিন দফায় জমি অধিগ্রহল কাজ হবে, তবে প্রথম দফায় অধিগ্রহণের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। পরবর্তীতে আরো ২টি ধাপ শেষ হলেই মূল সড়ক নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী আনিসুর রহমান মণ্ডল জানান, এক অংশে কাজ করছে পৌরসভা এবং অপর অংশ অধির-ন্যাংড়ার মোড় থেকে দ্বারিয়াপুর মোড় পর্যন্ত সংযোগ সড়কের কাজ করবে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর। তিনি আরো জানান, জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ার কাজ এখনো শুরু হয়নি।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ