শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ‘চিন্তাভাবনা চলছে’

অনলাইন ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতির কারণে বন্ধ হওয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ‘চিন্তাভাবনা করছে’ বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি বলেন, আমরা এখন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ওপর (শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়টি) দিয়ে দিয়েছি। তারা চিন্তাভাবনা করছে কী করা যায়। (মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত নিয়ে) কওমি মাদ্রাসা খুলে দেওয়া হয়েছে।

সোমবার মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত জানানোর সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নে এ তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে মন্ত্রিসভায় কোনো আলোচনা হয়েছে কি না, এ প্রশ্নে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, (মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের) লেটেস্ট যে সার্কুলার, তাতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ওপর (বিষয়টি) ছেড়ে দিয়েছি। কারণ এখন আর সেন্ট্রালি অত বড় এমবার্গো দেওয়ার মতো অবস্থা নেই।

তিনি বলেন, গত ১০-১২ দিন আগে জার্মানিতে কথা বললাম, তারা সব ওপেন করে দিচ্ছে, যদিও (সংক্রমণ) ধরা পড়ছে। কিন্তু কী করবে, কত দিন আর বন্ধ রাখা যাবে?

করোনাভাইরাসের কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করা আছে।

তবে অনলাইনে পাঠদান চলছে। কবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে সেই অপেক্ষায় শিক্ষার্থীরা। এরই মধ্যে পিইসি পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়ার চিন্তাভাবনা চলছে।

 

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ