রাস্তার পাশে দুই যুবকের গলাকাটা লাশ

  • 5
    Shares

অনলাইন ডেস্ক: যশোরের মণিরামপুর উপজেলার ঢাকুরিয়া ইউনিয়নের বারপাড়ার একটি রাস্তার পাশ থেকে দুই যুবকের গলকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দুটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এরা হলো, সদর উপজেলার জয়ন্তা গ্রামের মুক্তার গাজীর ছেলে বাদল হোসেন (২৪) এবং একই গ্রামের লোকমান আলীর ছেলে আব্দুল আহাদ আলী (২৫)।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার তারা মণিরামপুর উপজেলার বারপাড়ায় ডিশ লাইনের কাজ করছিল। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে কে বা কারা তাদেরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে ফেলে রেখে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে বাদলকে মৃত অবস্থায় পায়। আর আহাদকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে। আহাদকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। কারা তাদের হত্যা করেছে এই বিষয়ে তিনি কিছু জানাতে পারেননি।

স্থানীয় একটি সূত্রে জানা গেছে, আহাদ আলী এবং বাদল হোসেন ডিশ লাইনের কাজ করেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে মোটরসাইকেলযোগে সদর উপজেলার বলরামপুর গ্রামের দক্ষিণপাড়ার নিউ সোনা ব্রিক্সের সামনে দিয়ে তারা ঢাকুরিয়ার দিকে যান। মণিরামপুরের ঢাকুরিয়া ইউনিয়নের বারপাড়া গ্রামের মাঠের মধ্যে পৌছালে দুর্বৃত্তরা তাদের পথরোধ করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। পরে পথচারীরা দেখে স্থানীয় লোকজনদের জানায়। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়।

সংবাদ পেয়ে যশোর সদর উপজেলার বসুন্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম খাঁন রাসেল ও নরেন্দ্রপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোদাচ্ছের আলী ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে আটক বা কারা ঘটিয়েছে তা শনাক্ত করা যায়নি।

এ ব্যাপারে থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ তাসমীম আলম বলেছেন, ঘটনাটি মণিরামপুর থানাধীন ঢাকুরিয়া ইউনিয়নের উত্তরপাড়া (বারপাড়া) মাঠের মধ্যে ঘটেছে। সেখানে পুলিশের একাধিক টিম আছে। অপরাধীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ