রাজীব গান্ধী করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে কারাগারে তুলকালাম

সোনালী ডেস্ক: কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলা মামলার আসামি জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধীকে আদালতে হাজির করার জন্য রোববার রাতে নাটোর জেলা কারাগার থেকে কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারে আনা হয়। কিন্তু করোনা আক্রান্ত সন্দেহে রাজীব গান্ধীকে কিশোরগঞ্জ কারাগারে রাখতে প্রথমে অসম্মতি জানায় কারা কর্তৃপক্ষ। এ সময় কারারক্ষী ও পুলিশ সদস্যদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। দফায় দফায় চলে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা ও দায়রা জজ, কারাগারের সুপারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের ফোনালাপ ও যোগাযোগ। নানা নাটকীয়তার পর রাত আড়াইটার দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইজি প্রিজনের হস্তক্ষেপে প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তাকে কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারের একটি কনডেম সেলে রাখা হয়। তবে আদালতে না তুলে সোমবার দুপুরে তাকে কাশিমপুরের হাই সিকিউরিটি কারাগারে পাঠানো হয়।
জানা গেছে, শোলাকিয়া জঙ্গি হামলা মামলার অন্যতম আসামি শীর্ষ জঙ্গি রাজীব গান্ধীকে সোমবার কিশোরগঞ্জ আদালতে হাজির করার নির্ধারিত তারিখ ছিল। সোমবার রাত ১১টার দিকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থায় তাকে নাটোর কারাগার থেকে প্রিজন ভ্যানে কিশোরগঞ্জ জেলা কারাগারে আনা হয়। কিন্তু রাজীব গান্ধী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এমন সন্দেহে জেলা কারাগারের সুপার মো. বজলুর রহমান তাকে কারাগারে রাখতে রাজি হননি। এ নিয়ে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ শীর্ষ কর্মকর্তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আইজি প্রিজনের সঙ্গে কথা বলেন। পরে গভীর রাতে প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর রাজীব গান্ধীকে কিশোরগঞ্জ কারাগারে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়। তাকে কারাগারের একটি কনডেম সেলে রাখা হয়। কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানান, রাতে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে তার শরীরে করোনার কোনো লক্ষণ পাওয়া যায়নি। এদিকে কিশোরগঞ্জের জেলা কারাগারের সভাপতি ও কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী জানান, রাজীব গান্ধীকে আদালতে হাজির না করে সোমবার দুপুরে কাশিমপুরের হাই সিকিউরিটি কারাগারে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

শর্টলিংকঃ