রাজশাহীতে করোনা সন্দেহে আইসোলেশন ওয়ার্ডে যুবক

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে করোনা সংক্রমিত সন্দেহে এক যুবককে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। তবে রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আসা ব্যক্তির সংখ্যা কমেছে। রোববার সকাল ৮টা থেকে গতকাল সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এ বিভাগের আট জেলায় নতুন করে হোম কোয়ারেন্টাইনে এসেছে ১৩১ জন।
রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক কার্যালয় জানিয়েছে, গত ১০ মার্চ থেকে এ পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আসে ৬ হাজার ৮৪০ জন। তবে হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়া থেকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৩০৯ জন।
এদিকে সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের জানানো হয়, করোনা সংক্রমিত সন্দেহে এক যুবককে আইডি হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার রাত ১২টার দিকে তাকে ভর্তি নেয়া হয়। ওই যুবকের বাড়ি রাজশাহীর পবা উপজেলায়।
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা কমিটির আহŸায়ক অধ্যাপক আজিজুল হক আজাদ জানান, ওই যুবকের সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্ট রয়েছে। তবে এখনো আমরা নিশ্চিত নই। তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।
এদিকে ব্রিফিং-এ হাসপাতালের উপ-পরিচালক সাইফুল ফেরদৌস জানান, করোনা বিষয়ে ১৫ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিয়ে টিম গঠন করা হয়েছে। এছাড়া হটলাইন চালু করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগ শনাক্তে রাজশাহীতে পলিমার চেইন রিঅ্যাকশন (পিসিআর) মেশিন স্থাপন করা হচ্ছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজে এখন পুরোদমে চলছে ল্যাব প্রস্তুতের কাজ। আগামীকাল বুধবার থেকে এখানে করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষা শুরু হতে পারে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
ব্রিফিং-এ অন্যদের মধ্যে রামেকের অধ্যক্ষ ডাক্তার নওসাদ আলী, রামেক হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাক্তার খলিলুর রহমান, করোনা চিকিৎসা টিমের প্রধান ডাক্তার আজিজুল হক আজাদ, রামেকের সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডাক্তার হাবিবুল্লা সরকারসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য চিকিৎসকরা উপস্থিত ছিলেন।

শর্টলিংকঃ