রাজশাহীতে করোনার উপসর্গে আহমেদ কুরিয়ারের মালিকের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: করোনার উপসর্গ নিয়ে রাজশাহীতে আহমেদ পার্সেল সার্ভিস লিমিটেডের মালিক নবুয়াত আলী মারা গেছেন। তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন।

রোববার (২১ জুন) রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি মারা যান। নবুয়াত আলীর বাড়ি রাজশাহী মহানগরীর আলুপট্টি এলাকায়। মৃত্যুর পর হাসপাতালের পক্ষ থেকে বিষয়টি কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনকে জানানো হয়েছে। কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন স্বাস্থ্যবিধি মেনে তার লাশ দাফনের ব্যবস্থা করবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। সূত্র জানায়, মৃত্যুর পর আহমেদ কুরিয়ারের মালিক নবুয়াত আলীর মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার পরই বলা যাবে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন কি না।

এর আগে রাত ৮টার দিকে রামেক হাসপাতালের আইসিইউতে নাম মতিউর রহমান (৫৬) নামে এক ব্যক্তি মারা যান। তারও করোনার উপসর্গ ছিলো। রাজশাহী মহানগরীর পবা নতুনপাড়া এলাকায় তার বাড়ি।

এছাড়া সকাল ৯টার দিকে আইজ উদ্দিন (৭২) নামে আরেক ব্যক্তি করোনার উপসর্গ নিয়ে রামেক হাসপাতালের আইসিইউতে মারা যান। তার বাড়ি রাজশাহী মহানগরীর মহিষবাথান এলাকায়। এই দুজনেরও নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এ নিয়ে রামেক হাসপাতালের আইসিইউতে করোনার উপসর্গে একদিনেই তিনজনের মৃত্যু হলো।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ