রাজশাহীতে এন্ড্রু কিশোরের স্মরণসভা ও প্রার্থনা

  • 19
    Shares

স্টাফ রিপোর্টার: প্লে-ব্যাক সম্ম্রাট এন্ড্রু কিশোরের স্মরণে প্রার্থনা ও স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে রাজশাহী নগরীর সিটি চার্চে এ সভার আয়োজন করা হয়। বিকেল ৪টা থেকে পরিবারের সদস্য, সহকর্মী ও ভক্তরা চার্চে আসতে শুরু করেন। এরপর চার্চের সভা কক্ষে সাড়ে ৪টার দিকে শুরু হয় প্রার্থনা ও স্মরণ সভা।

সভায় প্রয়াত এই কিংবদন্তি শিল্পীর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। প্রার্থনা সভা পরিচালনা করেন সিটি চার্চের ফাদার আশীষ মন্ডল। পরে স্মৃতিচারণ করেন শিল্পীর স্ত্রী, সন্তান ও বড় বোনসহ সহকর্মীরা।

এন্ড্রু কিশোরের দুলাভাই প্যাট্রিক বিপুল বিশ্বাস বলেন, ধর্মীয় মতে কোনো চার্চের সদস্য মারা গেলে ৪০ দিন পর চার্চের সকল সদস্যরা তার জন্য প্রার্থনা করি, যেন তার আত্মা ঈশ্বরের কাছে পৌঁছায় এবং শান্তি পায়। এ জন্যই এন্ড্রু কিশোরের জন্য প্রার্থনা করা হচ্ছে।

গত ৬ জুলাই সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরীর মহিষবাথান এলাকায় থাকা বড় বোন ডা. শিখা বিশ্বাসের হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন প্লেব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর। তার মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়। পরে ছেলে-মেয়ে অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরলে ১৫ জুলাই এন্ড্রু কিশোরের শেষকৃত্যানুষ্ঠান করে পরিবার। রাজশাহী শহরের কাজিহাটায় থাকা বাংলাদেশ চার্চের কবরস্থানে শিল্পীর পছন্দের স্থানেই তাকে সমাহিত করা হয়।

রাজশাহীতে জন্ম নেওয়া এন্ড্রু কিশোর প্রায় ১৫ হাজার গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া এই শিল্পী ক্যানসারে ভুগছিলেন। গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে তিনি সিঙ্গাপুরেই ছিলেন চিকিৎসার জন্য। শিল্পীর ইচ্ছায় তাকে দেশে আনা হয় এ বছরের ১১ জুন। এরপর ২০ জুন তিনি রাজশাহীতে বড় বোনের বাসায় গিয়ে ওঠেন। সেখানেই জীবনের শেষ সসময় পর্যন্ত সেবা চলছিল তার।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ