রাকসু নির্বাচন নিয়ে উপাচার্যের বক্তব্য’র প্রতিবাদ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (রাকসু) নির্বাচন নিয়ে উপাচার্যের দেওয়া বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিক্রিয়াশীল বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন। গতকাল রোববার পৃথক পৃথক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল ছাত্রজোট ও বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ এ প্রতিবাদ জানায়।
প্রগতিশীল ছাত্রজোটের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেছেন, ‘আমি বহুবার বলেছি, রাকসু নির্বাচন দিতে চাই। কিন’ একটি ছাত্র সংগঠনও রাজি হয়নি।’ বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ কর্তাব্যক্তি হিসেবে উপাচার্যের এ বক্তব্য ছাত্র সংগঠনগুলো সম্পর্কে মিথ্যাচার। কেননা, প্রগতিশীল ছাত্রজোটসহ অন্যান্য ছাত্র সংগঠনগুলো দীর্ঘদিন ধরে রাকসু নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছে। এরই প্রেৰিতে ছাত্র সংগঠনগুলোর সঙ্গে সংলাপ করেছে প্রশাসন। কিন’ প্রশাসনের অনীহার কারণে রাকসু নির্বাচনকেন্দ্রীক কার্যক্রম লোক দেখানোর ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। প্রশাসনের স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাব, দুর্নীতি, লুটপাট, নিয়োগ বাণিজ্য ব্যর্থতা ঢাকতেই এরকম বিভ্রান্তিমূলক মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে শিৰার্থীদের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করছে।
বিশ্ববিদ্যালয়েল বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দীর্ঘ ২৯ বছর ধরে ছাত্র সংসদ নির্বাচন বন্ধ রেখে স্বৈরাচারী পন’ায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত হচ্ছে। ডাকসু নির্বাচনের পর থেকে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনগুলো রাকসু নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছে। কিন’ উপাচার্যের এমন মিথ্যাচারমূলক বক্তব্য শিৰার্থীদের ওপর দায় চাপানোর মতো। উপাচার্যের এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ ও দ্র্বত রাকসু নির্বাচনের তপশিল ঘোষণার দাবিও জানান সংগঠনগুলো।
প্রসঙ্গত, শনিবার (৭ মার্চ) এক অনুষ্ঠানে উপাচার্য বলেছেন, ‘আমি বহুবার বলেছি, রাকসু নির্বাচন দিতে চাই। কিন’ একটি ছাত্র সংগঠনও রাজি হয়নি।’ তার এই বক্তব্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।

শর্টলিংকঃ