যে কারণে ক্ষমতা ছাড়তে রাজি ট্রাম্প

অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন নির্বাচনে জয়ী জো বাইডেনের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরুর বিষয়ে অবশেষে সম্মত হয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে বেশ কয়েকটি মামলা করার পর একে একে মামলায় পরাজয় হওয়ার পরও ট্রাম্প ক্ষমতা ছাড়তে চাইছিলেন না। রিপাবলিকান দলের শীর্ষনেতারা ট্রাম্পের আচরণে ক্ষুদ্ধ হওয়ার পরই ট্রাম্প ক্ষমতা হস্তান্তরে রাজি হন। সিএনএন,পলিটিকো।

যুদ্ধ লাগানোরও চেষ্টা করেছেন ট্রাম্প। কিন্তু মিশিগান রাজ্যের আইনপ্রণেতাদের যথাযথ উদ্যোগের কারণেই ট্রাম্পের সব প্রয়াস কার্যত ভেস্তে গেছে। তবে ক্ষমতা হস্তান্তরের আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরুর বিষয়ে সম্মত হলেও এখনো নির্বাচনে আনুষ্ঠানিক পরাজয় মেনে নেননি ট্রাম্প। তিনি লড়াই অব্যাহত রাখবেন বলে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে মিশিগানের রিপাবলিকান নেতা ফ্রেড আপটন সিএনএনকে বলেন, রিপাবলিকান দলের জ্যেষ্ঠ নেতারা এই পরিস্থিতির ইতি টানতে একমত হন। সিএনএনের ‘ইনসাইড পলিটিকস’ অনুষ্ঠানে ফ্রেড আপটন বলেন, ‘সব শেষ।’

যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষমতা হস্তান্তরের বিষয়টি দেখভাল করে ফেডারেল এজেন্সি জেনারেল সার্ভিস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (জিএসএ)। মিশিগানে বাইডেনের আনুষ্ঠানিক বিজয় ঘোষণার পরই ট্রাম্প জিএসএর প্রধান এমিলি মারফিকে বাইডেন প্রশাসনকে ক্ষমতা গ্রহণের প্রস্তুতি নিতে সহযোগিতা করার নির্দেশ দিয়ে টুইট করেছেন।

রিপাবলিকান দলের পক্ষ থেকে বাউডেনকে আনুষ্ঠানিকভাবে মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পরিকল্পনাও ছিল। এটি জানতে পারেন ট্রাম্প। ফলে তার কঠোর অবস্থান পাল্টাতে বাধ্য হয়।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ