ম্যানসিটি-রিয়াল মাদ্রিদ ম্যাচ নিয়ে ধোঁয়াশা

  • 8
    Shares

অনলাইন ডেস্ক: চ্যাম্পিয়নস লিগে রিয়াল মাদ্রিদ এবং ম্যানচেস্টার সিটির মধ্যকার শেষ ষোলোর ম্যাচ নিয়ে ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে। সূচি অনুযায়ী শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ ম্যানচেস্টারের মাঠে ইতিহাদে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। তবে ইংল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের কোয়ারেন্টাইন নীতির কারণে ম্যাচটি নিয়ে ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে।

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ২৭ ফেব্রুয়ারি শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ২-১ গোলের জয় পেয়েছিল ম্যানসিটি। ফলে দ্বিতীয় লেগে ম্যাচের আগে মানসিকভাবে বেশ এগিয়ে ছিল ইংল্যান্ডের ক্লাবটি। উয়েফার নতুন সূচি অনুযায়ী আগামী ৭ আগস্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ। উয়েফা ভেন্যুর ক্ষেত্রে জানিয়েছিল, দ্বিতীয় লেগে দলগুলো চাইলে হোম গ্রাউন্ডের সুবিধা নিয়ে খেলতে পারবে। তবে প্রয়োজন পর্তুগালের লিসবনে ম্যাচ আয়োজন সম্ভব।

ফলে ইতিহাদে ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা ছিল ম্যানসিটির। তবে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জনসন করোনাভাইরাস ঠেকাতে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন নীতিতে অটল। আর এতে দ্বিমত রিয়াল কর্তৃপক্ষের। লস ব্লাঙ্কোসরা চ্যাম্পিয়নস লিগকে লক্ষ্য করে অনুশীলন শুরু করলেও ইংল্যান্ডে গিয়ে ১৪ দিন আইসোলেশনে থাকতে রাজি নয়। এমনকি রিয়াল কর্তৃপক্ষ ইংল্যান্ড সরকারের কাছে এই বিষয়ে পরিষ্কার নির্দেশনা চাইছে।

এদিকে ইংল্যান্ডের ক্রীড়ামন্ত্রীর সম্পাদক অলিভিয়ের ডোডেন জানিয়েছেন, চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং ফর্মুলা ওয়ান আয়োজনের ক্ষেত্রেও তারা তাদের নীতি থেকে সরে আসবে না। এমন অবস্থায় রিয়াল মাদ্রিদের কর্তারা পর্তুগালের লিসবনে ম্যানসিটির বিপক্ষে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় ম্যাচ খেলার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে।

তবে শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত ইংল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের হাতে। তিনি চাইলেই কেবল চ্যাম্পিয়নস লিগে দুই জায়ান্টের লড়াই ইতিহাদে হওয়া সম্ভব।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ