মেহনতি মানুষের কল্যাণে রাজনীতি করতে হবে

মুÐুমালা প্রতিনিধি: বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, রাজনীতি হতে হবে কৃষক, শ্রমিক, মেহনতি মানুষসহ সারাদেশের মানুষের কল্যাণের জন্য। রাজনীতি এমন হবে না যে আমি নেতা, আমি জমিদার আর সব মানুষ প্রজা। সে রাজনীতির দিন শেষ হয়ে গেছে।
বুধবার বিকালে রাজশাহীর তানোর উপজেলার কৃষ্ণপুর বাইতুল আমান মাদরাসা মাঠে দলের আসন্ন রাজশাহী বিভাগীয় জনসভা উপলক্ষে আয়োজিত প্রস্তুতি ও কর্মিসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ওয়ার্কার্স পার্টির তানোর উপজেলা শাখা এর আয়োজন করে।
রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, বঙ্গবন্ধুকে অনুসরণ করতে হলে আত্মোৎসর্গের রাজনীতিতে ফিরে আসতে হবে। পচন ধরা অবক্ষয়ের রাজনীতি থেকে বেরিয়ে এসে সৃজনশীল ও গুণগত মানের রাজনীতিকে পুনরুদ্ধার করতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা একদিনে আসেনি। দীর্ঘ ধারাবাহিক পথপরিক্রমায় আন্দোলন-সংগ্রাম আর ত্যাগ স্বীকার করে বাঙালি একটি স্থানে এসে পৌঁছায়। বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি ছিল মানুষের জন্য। বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি ভোগের নয়, ত্যাগের রাজনীতি। সেটা মাথায় রাখতে হবে।
দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে পরিপূর্ণতা দিচ্ছেন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমাদের দায়িত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করা। প্রধানমন্ত্রীর দুর্নীতিবিরোধী ও অনৈতিকতা বিরোধী অভিযানে, বাঙালি জাগরণের অভিযানে তাকে দল-মত নির্বিশেষে সকলে মিলে সহযোগিতা করতে হবে। তিনি বলেন, মুজিববর্ষে আমাদের শপথ নিতে হবে, যারা অন্যায়, অবিচার, দুর্নীতি, সন্ত্রাস, মাদক, ইভটিজিং-এ জড়িত তাদের রাজনীতির মাঠ থেকে ঝেঁটিয়ে বিদায় করতে হবে। অসা¤প্রদায়িক বাংলাদেশের যে সুন্দর, নির্মল চরিত্র, এটাকে আমাদের ধারণ করতে হবে।
ওয়ার্কার্স পার্টির তানোর উপজেলা সম্পাদকমÐলীর সদস্য সেকেন্দার আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন, দলটির কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আশরাফুল হক তোতা, রাজশাহী মহানগর সম্পাদকমÐলীর সদস্য আব্দুল মতিন, জেলা শ্রমিক ফেডারেশনের সদস্য মোশাররফ হোসেন, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য আব্দুল জলিল, ইমতিয়াজ বকুল, মনিরুজ্জামান মনি, জেলা যুবমৈত্রীর সাংগঠনিক সম্পাদক রায়হানুল হক, কৃষক নেতা রফিকুল ইসলাম, আব্দুস সাত্তার, জামাল সরকার, উপজেলা ওলামা লীগ নেতা মাওলানা আজহার উদ্দিন মাস্টার প্রমুখ। পরিচালনা করেন জেলা যুবমৈত্রীর সভাপতি মনির উদ্দিন পান্না।
এ সময় তানোর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার শতশত নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। তারা আগামী ২৯ ফেব্রæয়ারি রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদরাসা মাঠে পার্টির রাজশাহী বিভাগীয় জনসভা সফল করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

শর্টলিংকঃ