মিয়ানমারে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে অন্তত নয় জন নিহত

অনলাইন ডেস্ক: মিয়ানামারে সামরিক অভ্যুত্থান বিরোধীদের প্রতিবাদ চলাকালে আবারো গুলি চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এতে অন্তত নয় জন নিহত হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষর্শীদের বরাতে দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছে। দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীকে সংযম দেখানোর আহ্বান জানানোর পরদিন গুলিতে হতাহতের ঘটনা ঘটল।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বুধবার প্রতিবাদ বিক্ষোভে মিয়ানামরে দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মান্দালয়ের একটি প্রতিবাদস্থলে সংঘর্ষে দুই জন নিহত হন। বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গনে পুলিশের গুলিতে আরেক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। মধ্যাঞ্চলীয় মোনিওয়া শহরে পুলিশের গুলিতে পাঁচ জন এবং মধ্যাঞ্চলের আরেক শহর মায়েনগিয়ানে গুলিবিদ্ধ হয়ে আরেক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

গণমাধ্যম ও স্থানীয়রা বলছেন, এসব শহরের পাশাপাশি পশ্চিমাঞ্চলীয় চিন রাজ্যে, উত্তরাঞ্চলীয় কাচিন রাজ্যে, উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় শান রাজ্যে, মধ্যাঞ্চলের সাগাইং ও দক্ষিণাঞ্চলের দাউই শহরেও প্রতিবাদ হয়েছে। অন্যদিকে ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করার পর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে প্রায় তিনশ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে।

গত বছরের নভেম্বরে জাতীয় নির্বাচনে ব্যাপক জালিয়াতির অভিযোগ তুলে ১ ফেব্রুয়ারির সামরিক অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। এর পর থেকেই মিয়ানমারজুড়ে অস্থিরতা বিরাজ করছে। সামরিক শাসন বিরোধী গণতন্ত্রপন্থিরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। বিক্ষোভ দমাতে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে বুধবার পর্যন্ত অন্তত ৪০ জন প্রতিবাদকারী নিহত হয়েছেন। এছাড়া সহিংসতায় এক পুলিশও নিহত হয়েছেন বলে দেশটির সেনাবাহিনী জানিয়েছে।

 

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ