মহাকাশেও শক্তির প্রমাণ দেখাতে যাচ্ছে চীন

অনলাইন ডেস্ক: সব কিছু ঠিক মতো চললে চীন এই বছর নভেম্বর মাসে মহাকাশে তাদের মাইনিং রোবট পাঠাতে চলেছে। পৃথিবীতে এখন পর্যন্ত যে সব দেশ মহাকাশ গবেষণা করে চলেছে, চীনই তাদের মধ্যে প্রথম এই পদক্ষেপ করছে।

বেজিং-এর এক বেসরকারি কোম্পানি অরিজিন স্পেস ইতোমধ্যেই গবেষণা অনেকটা এগিয়ে নিয়ে গেছে। এ প্রোজেক্টের রোবটটিকে বলা হচ্ছে অ্যাস্টেরয়েড মাইনিং রোবট। কিন্তু আদতে কোনও রকম মাটি খোঁড়াখুঁড়ির কাজে একে ব্যবহার করা হবে না। এই মিশনটির মূল লক্ষণ গ্রহাণু পর্যবেক্ষণ।

অরিজিন স্পেস-এর তরফে রোবটটির নাম রাখা হয়েছে এনইও-১। এই এনইও-১ খবর অনুযায়ী, সম্ভবত চাইনিজ লং মার্চ রকেটের একটি সেকেন্ডারি পেলোড হতে চলেছে।

এক সাক্ষাৎকারে অরিজিন স্পেস-র কো-ফাউন্ডার য়ু তিউয়ানহং জানান, অন্যান্য স্পেসক্রাফ্টের তুলনায় এই স্পেসক্রাফটটি অনেক হালকা হতে চলেছে। এর ওজন হবে মাত্র ৩০ কেজি। এই প্রোজেক্টের লক্ষ্য স্পেসক্রাফ্ট অরবিট্যাল ম্যানুভার, মহাজাগতিক তাপমাত্রা- এই সব বিষয় পরীক্ষা করে তুলে ধরা।

এনইও-১ মিশনের ভালো-মন্দ নিয়ে অবশ্য এখনই জোর দিয়ে কিছু বলা যাচ্ছে না। একে তো এই প্রথম এ রকম উদ্যোগ নেওয়া হতে চলেছে, তার উপরে আবার ফলাফলের বিষয়টিও অনিশ্চিত। তবে অরিজিন স্পেস জানিয়েছে- এই মিশন যদি সাফল্য পায়, তা হলে নতুন বিনিয়োগের সম্ভাবনা তৈরি হতে  পারে।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ