ভোটে উৎসব স্কুলে স্কুলে

স্টাফ রিপোর্টার: উৎসবমুখর পরিবেশে রাজশাহীর প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহে অনুষ্ঠিত হয়েছে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন। গতকাল রোববার সকাল ৯টা থেকে বেলা ১ টা পর্যন্ত এ নির্বাচন চলে।
নগরীর ৬০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪২০ জন প্রার্থী নির্বাচিত হয়। এছাড়াও রাজশাহী জেলায় ১০৫৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৮ হাজার ১১৩ জন এবং দেশব্যাপী ৬০ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪ লাখ ২০ হাজার প্রার্থী বিভিন্ন পদে প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়।
পদগুলো হচ্ছে বিদ্যালয়ের পরিবেশ সংরৰণ, বিদ্যালয়ের আঙ্গিনা ও টয়লেট পরিষ্কার ও বর্জ ব্যবস’াপনা, পুস্তক এবং শিখন, স্বাস’্য, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি, পানি সম্পদ, বৃৰরোপণ ও বাগান তৈরি , অভ্যর্থনা ও আপ্যায়ন।
স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন সম্পর্কে বোয়ালিয়া থানা প্রাথমিক বিদ্যালয় শিৰক সমিতির সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত কাদির কুমকুম বলেন, স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচনের লৰ্য হচ্ছে শিৰার্থীদের দায়িত্ববোধ, দুর্বল শিৰার্থীদের সহযোগিতা, প্রতিষ্ঠানে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা, নিম্নতম স্তর পর্যন্ত গণতান্ত্রিক চর্চাকে বিকশিত করা।
গতকাল রোববার সকালে নগরীর তেরখাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় যে শিৰাথীরা সারিবদ্ধ হয়ে ভোট দিচ্ছে। সেখানে প্রার্থীর পৰের এজেন্টরা প্রচার চালাচ্ছে। ঠিক যেভাবে জাতীয় নির্বাচনে হয়। স্টুডেন্ট কাউন্সিলর প্রার্থীরা বিজয়ী হতে মরিয়া হয়ে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে। ঠিক যেভাবে স’ানীয় জনপ্রতিনিধিরা নির্বাচনে অংশ নিয়ে প্রার্থীরা নির্বাচন করে সেভাবেই শিশু শিৰার্থীরা হেসে খেলে আনন্দ আর উলৱাসের মধ্য দিয়ে প্রচার প্রচারণা উপভোগ করছে।
শিৰার্থীরা সুষ্ঠুভাবে ভোটাধিকার প্রয়োগ করে। উক্ত বিদ্যালয়ে ৭ জন প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়। সেখানে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচনের উদ্বোধন করেন ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনার হোসেন আনার। এ সময় উপসি’ত ছিলেন সহকারি থানা শিৰা অফিসার র্বনা লাইলা।

শর্টলিংকঃ