ব্যক্তিগত গাড়িতেও ঈদে রাজশাহী আসতে মানা

স্টাফ রিপোর্টার: ঈদের ছুটিতে ব্যক্তিগত গাড়িতে গ্রামে যাওয়া যাবে, সরকারি এমন নির্দেশনার কথা জানিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ করা হলেও রাজশাহীর জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক বলেছেন, এমন কোনো নির্দেশনা তিনি পাননি। তাই ব্যক্তিগত গাড়িতেও রাজশাহী না ফেরার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে জেলা প্রশাসক হামিদুল হক লেখেন, প্রাইভেট গাড়ি নিয়ে ঢাকার বাইরের জেলায় আসা-যাওয়ার কোন সরকারি সিদ্ধান্ত পাওয়া যায়নি। তাই কাউকে রাজশাহীতে না আসার অনুরোধ করা হলো।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এবার যে যেখানে আছেন সেখানেই তাকে ঈদ উদযাপনের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়। কিন্তু হঠাৎ করেই বৃহস্পতিবার ঈদের ছুটিতে যারা গ্রামের বাড়িতে ফিরতে চান তারা নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থায় বাড়ি ফিরতে পারবেন বলে সিদ্ধান্তের কথা জানা যায়।

গণমাধ্যমের সংবাদে বলা হয়, সরকারের উচ্চমহল থেকে পুলিশকে এ ধরনের একটি মৌখিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আর নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ছুটিতে জরুরি কাজের জন্য কেউ যদি গ্রামের বাড়ি ফিরতে চায় তাহলে পুলিশ যেন তাদের অনুমতি দেয়। তাদের যেন খুব বেশি হয়রানি বা প্রশ্নোত্তরের শিকার না হতে হয়। তবে গণপরিবহন চলবে না।

এমন নির্দেশনার পর ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রাইভেটকার এবং মাইক্রোবাস ভাড়া করে মানুষ রাজশাহীতে আসছেন। ট্রাকে গাদাগাদি করেও আসছেন প্রচুর মানুষ। শুক্রবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় এমন একটি ট্রাক আটকায় পুলিশ। ট্রাকের ত্রিপল সরিয়ে দেখা যায় ৪০ জন মানুষ। পরে সবার নাম-ঠিকানা লিখে নিয়ে পুলিশ নিজ নিজ বাড়ি ফিরতে দেয়। তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

সোনালী সংবাদ/আর.আর

শর্টলিংকঃ