বৈরুত বিস্ফোরণ: এখনো ১০০ মানুষ নিখোঁজ

অনলাইন ডেস্ক: লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ জোড়া বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহত হয়েছেন অন্তত একশ মানুষ। আরও একশ মানুষ নিখোঁজ বলে জানা গেছে।

বিবিসি জানায়, এই ঘটনায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়া বৈরুতের বন্দর এলাকায় অন্তত একশ মানুষকে খুঁজছে উদ্ধারকর্মীরা।

মঙ্গলবার দুটি বিস্ফোরণের পর লেবাননের শহরটি কেঁপে উঠে। বিস্ফোরণের শব্দে বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

শহরের প্রাণকেন্দ্র থেকে ঘন ধোঁয়ার কুণ্ডলী উঠতে দেখা গেছে। ১৫০ মাইল দূরের এলাকাতেও কম্পন অনুভূত হয়।

বিস্ফোরণের আঘাতে বিশাল এলাকা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়। ৪ হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। ঘরবাড়ি হারিয়ে ফেলেছেন ৩ লাখের মতো মানুষ।

এ ঘটনায় লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব তিনদিন ব্যাপী রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেন। বুধবার থেকে শোক শুরু হয় দেশটিতে।

বৈরুতের বন্দরের একটি রাসায়নিকের গুদাম থেকে ওই বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে লেবানন কর্তৃপক্ষ।

প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব  প্রতিরক্ষা কাউন্সিলের বৈঠকে মন্তব্য করেন, গুদামটিতে প্রায় ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট মজুদ ছিল এবং তাই বিস্ফোরিত হয়েছিল মঙ্গলবার।

এ ঘটনায় নিহতদের মধ্যে দুইজন বাংলাদেশি আছেন বলে নিশ্চিত করেছেন লেবাননের বাংলাদেশ দূতাবাস।

এ ছাড়া বিস্ফোরক গুদামের নিকটবর্তী বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ বিজয়-এর ২১ জন সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ২০ জন শঙ্কামুক্ত রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ২০১০ সাল হতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ লেবাননে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণ করে আসছে। ভূ-মধ্যসাগরে মাল্টিন্যাশনাল মেরিটাইম টাস্কফোর্সের সদস্য হিসেবে বর্তমানে নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ‘বিজয়’ ইউনিফিলে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় নিয়োজিত রয়েছে।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ