বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস, অভিযোগ পাকিস্তান অধিনায়কের বিরুদ্ধে

অনলাইন ডেস্ক: পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমের বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ আনলেন এক পাকিস্তানি মহিলা। তিনি দাবি করেন, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁকে বাড়ি থেকে নিয়ে গিয়েছিলেন বাবর। তার পর তাঁর সঙ্গে সহবাস করেন পাক অধিনায়ক। এর ফলে তিনি গর্ভবতী হয়ে পড়েন।

এক পাক সাংবাদিকের টুইটার অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিয়ো পোস্ট হয়েছে। সেখানে ওই মহিলাকে সাংবাদিক সম্মেলন করে বাবরের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে দেখা গিয়েছে।

তিনি বলেন, “বাবর এবং আমি স্কুল জীবন থেকে পরিচিত। ২০১০ সালে ও আমাকে প্রপোজ করে। আমি হ্যাঁ বলে দিয়েছিলাম। এর পর বাবর আমাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়, কিন্তু আমাদের বাড়ি থেকে মেনে নেয়নি। ২০১১ সালে ও আমাকে বাড়ি থেকে পালাতে সাহায্য করে। আমরা ঠিক করেছিলাম আইনসম্মত ভাবে বিয়ে করব। ও আমাকে বিভিন্ন ভাড়া বাড়িতে রাখতে শুরু করে। বিয়ের কথা বললেই তা পিছিয়ে দেয় বার বার।” তিনি আরও বলেন, “বাবর আমাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করে। আমি গর্ভবতী হয়ে পড়ি। এর পর ও আমায় মারধর করে এবং ভয় দেখায়।”

পাকিস্তান দলের সঙ্গে বাবর এই মুহূর্তে নিউজিল্যান্ডে। এই অভিযোগ নিয়ে এখনও তিনি কোনও বক্তব্য করেননি। সে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭ পাকিস্তানি ক্রিকেটার। নিউজিল্যান্ড বোর্ডের তরফেও নিয়ম ভাঙার অভিযোগ আনা হয়েছে তাঁদের বিরুদ্ধে। দেওয়া হয়েছে চরম সতর্কতা। এমন অবস্থায় এই অভিযোগ আরও বিপাকে ফেলল পাকিস্তানকে।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ