বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি নিয়ে জটিলতা দূর করুন

করোনা সংক্রমণ এড়াতে এবার এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। জেএসসি ও এসএসসির ফলাফলের গড় করে এইচএসসির ফল নির্ধারণ করা হবে। এর ফলে উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে যে জটিলতার আশঙ্কা জেগেছে। বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জটিলতা নিরসনে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজেসি) আগামী ১৫ অক্টোবর ভিসিদের নিয়ে বৈঠক করবে। এতে জটিলতা দূর হবে আশা করা যায় ।

সাধারণত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দেয়ার যোগ্যতা নির্ধারিত হয় এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে। ভর্তি পরীক্ষার ফলও নির্ভর করে এই দুই পাবলিক পরীক্ষার ফলের ওপর। ইঞ্জিনিয়ারিং বা মেডিকেলে পড়ার জন্য পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত, জীববিজ্ঞানের মত বিষয়গুলোতে ন্যূনতম গ্রেড প্রয়োজন হয়। তাই, পরীক্ষার বদলে জেএসসি ও এসএসসির ফলের ওপর ভিত্তি করে এইচএসসির ফল দেয়ার সিদ্ধান্তে বিশ্ববিদ্যালয়সহ উচ্চ শিক্ষায় ভর্তিতে নানা জটিলতা তৈরির আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা না হলেও এই পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা কীভাবে অনুষ্ঠিত হবে তা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা গুচ্ছ, না কেন্দ্রীয় (ক্যাট) পদ্ধতিতে নেয়া হবে সেটাও নিশ্চিত নয়। বিশ্ববিদ্যালয় ভিসিরা ক্যাট পদ্ধতি চাইলেও ইউজিসি চাচ্ছে গুচ্ছ পদ্ধতি। এই জটিলতা নিরসনে ইউজিসি আগামী ১৫ অক্টোবর বৈঠক ডেকেছে। এই বৈঠকের ওপরই এখন নির্ভর করছে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা কোন পদ্ধতিতে হবে।

এছাড়াও যে কারণে এইচএসসি পরীক্ষা বাতিল হলো সে কারণেই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়া অস্বাভাবিক নয়। এই পরীক্ষা উপলক্ষেও হাজার হাজার শিক্ষার্থী ও অভিভাবকের আসা-যাওয়া যে করোনা সংক্রমণের কারণ হবে না, তা কে বলতে পারে ?

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে সৃষ্ট এসব জটিলতা দূর করা জরুরি। আশা করি ১৫ অক্টোবরে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিদের সঙ্গে ইউজিসির বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টির সন্তোষজনক সমাধান পাওয়া যাবে।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ