বাঘায় পেট্রোলের দোকানে ভয়াবহ অগ্নিকা-, ইউএনওসহ আহত ৪০

বাঘা ও চারঘাট প্রতিনিধি: বাঘা বাজারে পেট্রোলের দোকানে ভয়াবহ আগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। এ অগ্নিকা-ে পাশের দুটি বাড়ি ও অপর একটি দোকান পুড়ে ব্যাপক ৰয়ৰতি হয়েছে। আগুন নেভাতে গিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ফায়ার সার্ভিসের কর্মী, সাংবাদিক, কৃষি কর্মকর্তা, পুলিশ, ইউপি চেয়ারম্যান, দোকান মালিকসহ ৪০ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ১০ জনকে রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টায় উপজেলার মনিগ্রাম বাজারে এই আগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে।
প্রত্যৰদর্শিরা জানান, সকাল সাড়ে ১০ টার সময় হঠাৎ বাজারের পশ্চিম মাথায় পেট্রোল ব্যবসায়ী মনির্বজ্জামান মনির দোকানে আগুন লাগে। এই আগুন মুহূর্তের মধ্যে তেলের ডামের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে এবং বাতাস না থাকায় আগুন উপরের দিকে উঠতে থাকে। প্রথমে কেও আগুন নেভানোর সাহস পাইনি। প্রায় ২০ মিনিট পর বাঘা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নেভাতে শুর্ব করলে একটি পেট্রোলের ড্রাম বিস্ফরণ হয়।
এ বিস্ফোরণে আহত হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা (৪০), ফায়ার সার্ভিসের কর্মী মহিবুর রহমান (২৫), উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সফিউলৱাহ সুলতান (৪১), এশিয়ান টিভির স্টাফ রির্পোটার আখতার রহমান (৫৫), বাঘা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক সইবুর রহমান (৩৫), মনিগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান ও মনিগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম (৫৫), তুলশীপুর ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি কাওছার রহমান (৫২), দোকান মালিক মনির্বজ্জামান, বিভিন্ন ব্যবসায়ীসহ ৪০ জন। এরমধ্যে ৩০ জন বাঘা উপজেলা স্বাস’্য কমপেৱক্রে ভর্তি হয়। আহত ১০ জন চারঘাট উপজেলা স্বাস’্য কমপেৱক্র ভর্তি হয়।
এর মধ্যে গুর্বতর আহত ফায়ার সার্ভিসের কর্মী মহিবুর রহমান, বাঘা থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক সইবুর রহমান, ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, তুশার, জানমোহাম্মদ ও গোলাম ম-লসহ ১০ জনকে রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয় বলে নিশ্চিত করেন বাঘা উপজেলা স্বাস’্য কর্মকর্তা ডা. আক্তার্বজ্জামান।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা জানান, আগ্নিকা-ের সময় বাতাস না থাকায় পার্শ্ববর্তী ব্যাবসায়ীর রৰা পেয়েছেন। পেট্রোলের ড্রাম বিস্ফোরণ হওয়ায় ৪০ জন আহত হয়েছে। পাশে ফার্বক নামে একজনের হার্ডওয়ারের দোকান এবং ইমরান হোসেন ও সাইফুল ইসলামের বাড়ি পুড়ে গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, প্রায় ১০-১২ লৰ টাকা ৰতি হয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছে বাঘা , চারঘাট ও লালপুর ফায়ার সার্ভিসের লোকজন।

শর্টলিংকঃ