বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে কটূক্তিকারীদের শাস্তির দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নিয়ে কটূক্তিকারীদের শাস্তির দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে মহানগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির রাজশাহী জেলা ও মহানগর শাখা এর আয়োজন করে।

মানববন্ধনে বক্তরা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধীকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। দোষীদের শাস্তি না হলে তারা রাজপথ থেকে সরবেন না বলেও ঘোষণা দেন তারা। বক্তরা বলেন, বাংলাদেশ এবং বঙ্গবন্ধু অভিন্ন। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশের জন্ম হতো না। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে যারা কটূক্তি করে তারা রাজাকার। তারা বাংলাদেশের শক্র। সেইসব দালালদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

তারা আরও বলেন, অনেক ইসলামিক দেশেই ভাস্কর্য আছে। ভাস্কর্যের সাথে ইসলামের কোন বিরোধ নেই। কিন্তু আমাদের দেশে স্বাধীনতার শক্ররা বারবার ধর্মের নামে ব্যবসা করে। তারা দেশে নতুন করে অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায়। নতুন প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুর অবদানকে তুলে ধরতে দিতে চায় না। কিন্তু প্রগতিশীল মানুষরা যতদিন আছে স্বাধীনতার পক্ষের মানুষ যতদিন আছে ততদিন সেটি সম্ভব নয়। স্বাধীন এই বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর ভার্স্কয হবেই হবে। কোন অপশক্তিই সেটি বাধা দিতে পারবে না।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির জেলার সভাপতি শাহজাহান আলী বরজাহান এবং পরিচালনা করেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির মহানগর শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম বাদশা।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শফিকুর রহমান বাদশা, মহানগর সেক্টর কমান্ডার ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক মামুন রশিদ, রাজশাহী থিয়েটারের সভাপতি কামারুউল্লাহ সরকার, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ কামরুজ্জামান, মহিলা পরিষদের জেলার সাধারণ সম্পাদক অঞ্জনা সরকার, ছাত্রনেতা তামিম সিরাজী প্রমুখ।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ